রেডজোন এলাকায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান, ১৩ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা 

হবিগঞ্জ শহরের রেডজোন এলাকায় কঠোর অবস্থান নিয়েছে প্রশাসন। বিকেল ৪ টার পর দোকান খোলা রাখা, মাস্ক না পড়াসহ বিভিন্ন অভিযোগে ১৩টি ব্যবসা প্রতিষ্টানের মালিককে ৭৯ হাজার ৫শত টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এদের মধ্যে উজ্বল রায়ের স্বর্ণালংকারের দোকানকে সর্ব্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে শহরের পুরান মুন্সেফী, শ্যামলী, সবুজ বাগ, স্টাফ কোয়ার্টার ও মুসলিম কোয়ার্টার সড়কসহ রেডজোন হিসেবে চিহ্নিত ৬ ও ৯নং ওয়ার্ডের একাধিক এলাকায় জেলা প্রশাসক কামরুল হাসানের নির্দেশে অভিযান চালিয়ে এ জরিমানা আদায় করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মতিউর রহমান।

তিনি জানান, রেডজোনে কঠোর অবস্থানে রয়েছে প্রশাসন। বিকেল ৪টার পর কোন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলা রাখা যাবে না। অপ্রয়োজনীয় ভাবে ঘুরা ফেরা করা ও মাস্ক ছাড়া ঘর থেকে বের হওয়া যাবে না। যারা আইন অমান্য করবে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

যেসব ব্যবসা প্রতিষ্টানে জরিমানা করা হয়েছে সেগুলো হল, ফরিদ আহমেদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ১ হাজার, সুশান্ত সরকার ৫ হাজার, আব্দুল মান্নান ৩ হাজার, আনোয়ার হোসেন ২ হাজার, রঞ্জিতপাল ৫শত, উজ্বল চৌধুরী ২ হাজার, সৌকত চৌধুরী ৩ হাজার, মোহাম্মদ আলী ৩ হাজার কামাল হোসেন ২ হাজার, সামছুল হক ২ হাজার, শাহনুর মিয়া ১ হাজার ও মমিন মিয়া (কলাপাতা হোটেল) ৫ হাজার। ভ্রাম্যমান আদালতকে সহযোগীতা করেন সদর থানার এসআই আব্দুর রহিমের নেতৃত্বে একদল পুলিশ।

একে কাওসার, (হবিগঞ্জ) জেলা প্রতিনিধি