মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ছোড়া শেলে অন্তঃসত্ত্বাসহ দুই নারী নিহত

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ছোড়া শেলে (গোলা) এক অন্তঃসত্ত্বাসহ দুই নারী নিহত হয়েছেন। এছাড়া আহত হয়েছেন আরও অন্তত ৭ জন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম রয়টার্স জানায়, শুক্রবার মধ্যরাতে এই হামলা চালায় মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। দেশটির রাখাইন রাজ্যের কিন তং গ্রামে পার্শ্ববর্তী এক সেনা ক্যাম্প থেকে শেল ছোড়ে সেনা সদস্যরা। এতে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

রোহিঙ্গা গণহত্যা ইস্যুতে মাত্র ২ দিন আগেই মিয়ানমারের বিরুদ্ধে রায় দিয়েছে জাতিসংঘের শীর্ষ আদালত ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিস (আইসিজে)। ওই রায়ে রোহিঙ্গাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় সব ধরনের ব্যবস্থা নিতে মিয়ানমারকে নির্দেশ দেওয়া হয়। অথচ এর মধ্যেই সেনাবাহিনীর হামলায় নিহত হলো ২ জন।

সেনাবাহিনীর হামলা সম্পর্কে রাখাইন রাজ্যের বুথিডং অঞ্চলের সংসদ সদস্য মং কিয়াউ জান বলেন, মধ্যরাতে কিন তং গ্রামে শেল ছোড়ে সেনাবাহিনীর সদস্যরা। এতে এখন পর্যন্ত ২ জন নিহতের খবর পেয়েছি। সেখানে কোনো সংঘর্ষ হয়নি। কোনো উত্তেজনা ছাড়াই সেখানে শেল ছোড়ে সেনারা।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে বিশাল সামরিক অভিযান চালায় দেশটির সেনাবাহিনী। এতে প্রায় ৭ লাখ ৫০ হাজার রোহিঙ্গা ওই রাজ্য থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়। মূলত ওই অভিযান নিয়েই মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা করে গাম্বিয়া।