ধর্ষণের যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে মদ্যপ ছেলেকে হত্যা

ভয়াবহ ঘটনার মুখোমুখি হলো ভারতের মধ্যপ্রদেশ। সেখানে এক তরুণের বিরুদ্ধে মদ্যপ অবস্থায় নিজের মা, বোন ও ভাই-বউকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। বহুবার এ ঘটনা ঘটিয়েছে ছেলেটি। অবশেষে সহ্য করতে না পেরে মদ্যপ ছেলেকে খুন করেছে তার পরিবার। এই অভিযোগে পরিবারের চার সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এই ভয়াবহ ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের দাতিয়াতে।

এ বিষয়ে পুলিশের সাব ডিভিশনাল অফিসার গীতা ভরদ্বাজ জানান, জিজ্ঞাসাবাদে পরিবারের সদস্যরা তাদের ছেলেকে খুন করার কথা স্বীকার করেছে। ছেলেটির বয়স ২৪ বছর। ১২ নভেম্বর গোপালদাস পাহাড়ি এলাকা থেকে উদ্ধার হয় সেই ছেলেটির মরদেহ।

গীতা ভরদ্বাজ জানান, ছেলেটিকে শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছে। সে মদ্যপ ছিল। তাকে নিয়ে তীব্র ক্ষোভ জন্মেছিল পরিবারের মধ্যে। তিনি বলেন,নিয়মিত নিজের মা,বোন ও বউদিকে ধর্ষণ করত ছেলেটি- এমনই বলছে পরিবার। তাই তারা তাকে একেবারেই মেরে ফেলার মতো নিষ্ঠুর সিদ্ধান্ত নেয়।

ছেলের বাবা জানিয়েছেন,১১ নভেম্বর তার ছেলে মদ্যপ অবস্থায় বাড়ি ফিরে তার ভাইয়ের বউকে ধর্ষণ করার চেষ্টা করে। তিনি বলেন,এর আগেও বহুবার সে এমন করেছে। তাই এবার আমরা ওকে মেরে ফেলি। আর ওর মরদেহ ফেলে দিই গোপালদাস পাহাড়ে।

মৃতের বাবা,স্ত্রী,ছোট ভাই ও তার স্ত্রীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ । চারজনকেই বিচারবিভাগীয় হেফাজতে পাঠিয়েছে আদালত।