পিয়াজের কেজি ৫৫ টাকার বেশি হলেই গুণতে হবে জরিমানা

হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নুসরাত ফাতিমা শশী ব্যবসায়ীদের হুঁশিয়ারি করেছেন পিয়াজের কেজি ৫৫ টাকার বেশি হলেই জরিমানা গুণতে হবে। শনিবার এক অভিযান শেষে রাতে স্থানীয় ব্যবসায়ী নেতাদের ডেকে তিনি একথা জানিয়ে দেন।

এর আগে, পিয়াজের দাম বেশি রাখায় অভিযান চালিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে এক ব্যবসায়ীকে এক লাখ টাকা জরিমানা এবং অতিরিক্ত পিয়াজ মজুত রাখায় দুই ব্যবসায়ীর গুদাম সিলগালা করে দেন তিনি।

চুনারুঘাটের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভারপ্রাপ্ত ইউএনও নুসরাত ফাতিমা শশী বলেন, পিয়াজের কেজি ৫৫ টাকার বেশি রাখবেন না। রাখলে ১ লাখ টাকা পর্যন্ত জরিমানা করা হবে। এক্ষেত্রে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। একই সঙ্গে আপনারা পিয়াজের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে মূল্য বৃদ্ধি করলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তবে, ইউএনওর হুঁশিয়ারিতে পিয়াজের কেজি ৫৫ টাকা কার্যকরের জন্য একদিনের সময় চেয়ে নেন ব্যবসায়ী নেতারা। কারণ হিসেবে ইউএনওকে তারা বলেন, বেশি দামে পিয়াজ কেনা আছে এবং মজুত রয়েছে। এসব পিয়াজ বিক্রি শেষ হলেই ৫৫ টাকা কেজিতে বিক্রি শুরু করব আমরা।

বৈঠকে চুনারুঘাট ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি আব্দুল সালাম তালুকদার, সেক্রেটারি মাসুদ আহম্মেদ, ক্যাব চুনারুঘাট উপজেলা সেক্রেটারি সাংবাদিক মনিরুজ্জামান তাহের ও মুদি ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আজগর আলী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।