ডি-ভেন্টস ও আই টু বি এর যৌথ উদ্যোগের আয়োজন ‘আর্টস অ্যান্ড এন্টারপ্রেনিয়ারস ফেস্ট ২০১৯’

দ্বিতীয় বারের মত ফ্যাশন প্রেমীদের জন্য ডি-ভেন্টস এবং আই টু বি এর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত হতে যাচ্ছে ‘আর্টস অ্যান্ড এন্টারপ্রেনিয়ারস ফেস্ট ২০১৯’। ৩ দিন ব্যাপী এই মেলার এই বিশাল আয়োজন থাকছে দেশীয় বিভিন্ন পন্যের সামগ্রী, দেশি তৈরি পোশাক, গয়না, শিল্পকর্ম সহ নানা ধরনের পণ্য এবং সুস্বাদু খাবার!

মেলার আয়োজন নিয়ে ডিভেন্টস এর চেয়ারম্যান সাজিদ ইসলাম বলেন, ডি-ভেন্টস হচ্ছে প্রডাক্ট ভিত্তিক এক্সিবিশন কোম্পানি। ডি-ভেন্টস থেকে কিছুদিন আগেও এক্সিবিশন হয়েছে। ডি-ভেন্টস সবসময় চেষ্টা করে উদ্যোক্তাদের পাশে দাড়াতে তাদেরকে একত্রিত করতে এবং উদ্যোক্তাদের ব্যবসায় প্রসার তৈরিতে সাহায্য করতে। তবে এবারের এক্সিবিশন টা একটু ভিন্ন। ‘আর্টস অ্যান্ড এন্টারপ্রেনিয়ারস ফেস্ট ২০১৯’ আমাদের বাংলাদেশের তৈরি পণ্যকে প্রতিনিধিত্ব করবে এবং সেই সাথে উদ্যোক্তাদেরকে অনুপ্রাণিত করবে। তবে আমাদের মূল উদ্দেশ্য হলো উদ্যোক্তাদের নিয়ে কাজ করা, তাদের অনুপ্রাণিত করা এবং সেই সাথে যারা অনলাইন এ ব্যবসা করে তাদের অনলাইন প্লাটফর্মকে একটা জায়গায় দৃশ্যমান করা।

এবারের মেলায় থাকছে ৩০ টার মত স্টল এবং ৪০ টার মত ব্রান্ড। নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী থেকে শুরু করে পোশাক, গয়না, শিল্পকর্ম সহ নানা ধরনের পণ্য থাকবে এবারের মেলায়।

মেলা সম্পর্কে আই টু বি এর প্রতিষ্ঠাতা সিফাত জাহান বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এখন নিত্যদিনের প্রয়োজন। বিভিন্ন ব্র্যান্ড তাদের আয় রোজকার এর গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করছে সামাজিক মাধ্যমকে। একজন সামাজিক উদ্দোক্তা হিসেবে আমার গ্রুপের মাধ্যমে আমি মানুষকে উৎসাহমূলক বিষয় জানাতে চেষ্টা করে থাকি সেই সাথে ইতিবাচকতা সামনে আনতে চাই। বাংলাদেশী নারী উদ্দক্তাদের সাফল্যগাথা জানাতে চাই। উঠতি বয়সীদের মাঝে অনেক প্রতিভাবান রয়েছে, তাদের কে সবার মাঝে পরিচিতির সুযোগ দিতে চাই নিজ উদ্যোগে। শিল্প এবং উদ্যোক্তাদের সাহায্য করাই আমার এই মেলার মূল উদ্দেশ্য।

ডিসেম্বর মাসের ১২, ১৩ এবং ১৪ তারিখ তিন দিন এই মেলা অনুষ্ঠিত হবে রাজধানীর ধানমণ্ডি ২৭-এর মাইডাস সেন্টারে। মেলায় থাকছে না কোন প্রবেশ মূল্য, সকলের জন্যই উন্মুক্ত।