মোবাইলের কার্ড চুরির অভিযোগে কিশোরকে গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে শুক্রবার বিকালের দিকে উপজেলার চরহাজারী ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের ধনী পাড়া এলাকায় মোবাইলের রিচার্জ কার্ড চুরির অভিযোগে ৫ম শ্রেণির এক মাদ্রাসা ছাত্রকে গাছের সঙ্গে বেঁধে অমানবিক নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে। রাত সাড়ে ১০টার দিকে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয় নির্যাতনের শিকার সেই কিশোরকে।

ওই কিশোরের মা জানান, আব্দুল্লাহ চৌকিদারের দোকান থেকে ১২০ টাকার মোবাইল কার্ড চুরির অভিযোগে আমার  সন্তানকে ৯নং ওয়ার্ডের আব্দুল্লাহ চৌকিদার ও তার ছেলে ইসমাইল হোসেন মিলন গাছের সঙ্গে বেঁধে মহিষের রশি ও লাঠি দিয়ে বেধড়ক মারধর করে। খবর পেয়ে আমি তাকে উদ্ধার করে রাত সাড়ে ১০টার দিকে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করি। আগামীকাল আমি চৌকিদার ও তার ছেলের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করবো।

এদিকে অভিযুক্ত আব্দুল্লাহ চৌকিদার নিজেকে নির্দোষ দাবী করে জানান, আমি সজিবকে মারধর করিনি, বাড়ির মহিলারা মারধর করে থাকতে পারে।

তিনি আরও জানান, স্থানীয় ইউপি সদস্য ফজলু মেম্বার ও যুবলীগ নেতা মাহফুজ এই ঘটনা সমাধান করে দিয়েছে।

এই বিষয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি আরিফুর রহমান জানান, বিষয়টি খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।