বিমানবন্দরে পেটের ভেতর প্রায় ১২শ পিস ইয়াবাসহ যাত্রী আটক

হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিমানবন্দর আর্মড পুলিশের হাতে ১১৯০ পিস ইয়াবাসহ আটক হয় এক ব্যক্তি। শুক্রবার রাত নয়টার সময় বিমানবন্দর থানায় এ সংক্রান্তে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন বিমানবন্দর আর্মড পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(অপস অ্যান্ড মিডিয়া) আলমগীর হোসেন।

আটক আলমগীর মোল্লা মুন্সীগঞ্জ জে্লার লৌহজং থানার বাসুদিয়া গ্রামের চাঁন মিয়া মোল্লার  পুত্র।

বিমানবন্দর সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার সকাল ১০ টার সময় আলমগীর মোল্লা (৪৫) বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনালের বর্হিগামী রাস্তার ডানে গাড়িপার্কিং এলাকায় সন্দেহজনক ঘোরাফেরা করছিলো। এ সময় তার গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হলে তাকে চ্যালেঞ্জ করে আর্মড পুলিশের দায়িত্বরত সদস্যরা। পরে আলমগীর পুলিশের উপস্থিতি দেখে কৌশলে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। তাকে বিমানবন্দর আর্মড পুলিশের হেফাজতে নিয়ে তল্লাশি ও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এসময় তাকে জিজ্ঞাসাবাদে সে পেটের ভিতর ইয়াবা থাকার কথা স্বীকার করে। পররবর্তীতে বিশেষ কায়দায় সাড়ে সাত ঘণ্টা পর তা বের করে আনা হয়।

এ প্রসঙ্গে বিমানবন্দর আর্মড পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন বলেন, বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনালের বহিরাঙ্গনে সন্দেহজনকভাবে ঘোরাফেরা করছিলো আলমগীর মোল্লা। পরবর্তীতে  তার পেট থেকে এই ইয়াবা বের করে আনা হয়। এই ইয়াবার বাজার মূল্য প্রায় ৬ লাখ টাকা বলে জানা গেছে। জিজ্ঞাসাবাদে সে জানিয়েছে গাজীপুরের কালিয়াকৈরের জনৈক মুমিনুলের অর্থায়নে সে এই ইয়াবা বহন করেছে। সে ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সযোগে কক্সবাজার থেকে এই ইয়াবা নিয়ে ঢাকায় আসে।