বান্দরবানে ভুয়া পরিচয়ে পাসপোর্ট করতে এসে রোহিঙ্গা তরুনীসহ আটক ২

বান্দরবানে আবারও ভুয়া পরিচয় দিয়ে পাসপোর্ট করতে এসে রোহিঙ্গা তরুনীসহ ২ জনকে আটক করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বান্দরবান পাসপোর্ট অফিস থেকে তাদের আটক করা হয়।

পুলিশ ও পাসপোর্ট অফিস সূত্রে জানা গেছে, কক্সবাজারের উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের নিবন্ধিত রোহিঙ্গা নারী জোসনা আক্তার (১৬) এবং তার পিতা পরিচয় দানকারী শহীদ আলম (৩২) বৃহস্পতিবার বান্দরবান পাসপোর্ট অফিসে পাসপোর্ট করতে যান কিন্তু তাদের আচরণ আর কথাবার্তায় সন্দেহ হয়। পরে তারা তদন্ত করতে গিয়ে রোহিঙ্গা প্রমাণিত হওয়ায় তাদের আটক করা হয়। আটককৃতরা হলো- কক্সবাজারের উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের নিবন্ধিত রোহিঙ্গা জোসনা আক্তার (১৬) এবং পিতা পরিচয়ধানকারী বান্দরবান শহরের ইসলামপুর এলাকার বাসিন্দা শহীদ আলম (৩২)।

এ বিষয়ে বান্দরবান পাসপোর্ট অফিসের উপ-পরিচালক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, বান্দরবানের লামা উপজেলার ইয়াংছা এলাকার ঠিকানা ব্যবহার করে কক্সবাজারের উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের নিবন্ধিত রোহিঙ্গা জোসনা আক্তার বান্দরবান শহরের ইসলামপুর এলাকার বাসিন্দা শহীদ আলমকে পিতা পরিচয় দিয়ে পাসপোর্ট অফিসে আসে। তাদের কথবার্তায় সন্দেহ হলে যাচাই-বাছাই পর জোসনা রোহিঙ্গা প্রমানিত হয়। পরে তাদের পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

এদিকে আটক রোহিঙ্গা নারী জোসনা আক্তার বলেন, তিনি বাংলাদেশি। চাকরি পাওয়ার আশায় চট্টগ্রামে থাকার সময় তিনি রোহিঙ্গা হিসেবে নাম লিখিয়েছেন। বর্তমানে বিদেশ যেতে পাসপোর্ট করতে বান্দরবানে এসেছেন।

সোহেল কান্তি নাথ, বান্দরবান প্রতিনিধি