উত্তরা ডিভিশনে কিশোর গ্যাং রোধে পুলিশের বিশেষ অভিযান

রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে আবারো তৎপর হয়ে উঠেছে কিশোরদের সমন্বয়ে গঠিত গ্রুপ বা গ্যাং। তারা ছাত্র বেশে বিভিন্ন অপকর্মে লিপ্ত হচ্ছে প্রতিনিয়ত। খুন, ধর্ষণ, ছিনতাইসহ মাদক সেবনেও ওরা পিছিয়ে নেই। আর এদের অন্তরালে নিভৃতে রয়েছে একশ্রেণির রাঘববোয়াল বা গডফাদার। অবশেষে মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নির্দেশক্রমে সারাদেশে চলছে কিশোর গ্যাং ধরপাকড় অভিযান। তারই ধারাবাহিকতায় বৃহত্তর উত্তরায় চলছে কিশোর গ্যাং বিরোধী অভিযান।

ঢাকা উত্তরা জোনের ডিসি মহোদয় জনাব নাবিল কামাল শৈবাল দৃঢ় অবস্থান নেন এই অভিযানে। তার জোরালো তদারকি ও বুদ্ধিমত্তায় প্রথম দিনেই ব্যাপক সফলতা আসে। সারা উত্তরায় আটক করা হয় কয়েক’শ কিশোর গ্যাং সদস্য। পরে তাদের গার্জিয়ানদের মুসলেকা নিয়ে সতর্ক করে ছেড়ে দেয়া হয়। আর মূল হোতা কয়েকজনকে পাঠানো হয় জেল হাজতে। এ বিষয়ে কথা হয় উত্তরা জোনের ডিসি জনাব নাবিল কামাল শৈবালের সাথে।

তিনি জানান- “বয়স কোন বিষয় নয়। আইনের উর্ধ্বে কেউ নয়। আজকের কিশোরাই আগামীদিন দেশ শাসন করবে। আমরা অবহেলায় নষ্ট করতে পারিনা দেশের ভবিষ্যৎ। প্রত্যেক অভিভাবকদের উচিত তাদের সন্তানকে বিশেষ নজরদারিতে রাখা।” তিনি কিশোরদের লেখাপড়ার প্রতি মনযোগী হতে বলেন।। অন্যদিকে- উত্তরা জোনের অধীনে দক্ষিণখান থানা পুলিশ কিশোর অপরাধ দমন ও গ্রেফতারে উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্হাপন করেছে।

গত ১১-০৯-২০১৯ ইং প্রথম দিনেই গ্রেফতার করেছে ৪১ জন। ২য় দিনে আটক করেছে আরো ২৯ জন। এর মধ্যে দাগী সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীও রয়েছে। nine star group এবং big boss গ্রুপ এদের মধ্যে অন্যতম। এরা দীর্ঘদিন যাবত উক্ত থানা এলাকায় মাদকসহ বিভিন্ন অপকর্মে লিপ্ত আছে। ১ম দিনেই গাটু শাকিল ওরফে ইব্রাহীম শাকিল ও তার দল আটক হয়। ২য়দিন রাব্বি ও হৃদয়কে মাদকসহ আটক করা হয়। এছাড়া ছোটন গ্রুপের রায়হান ও তার দলবলকে আটক করা হয়। মূল হোতাদের আদালতে প্রেরণ ও বাকীদের অভিভাবকদের মুসলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়।

দক্ষিণখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জনাব শিকদার শামীম এই প্রতিবেদককে জানান- “কিশোর গ্যাং বিরোধী অভিযান চলতেই থাকবে। এরা অলিগলি ও নির্জন এলাকায় আড্ডা দেয়, ইভটিজিং করে ও মাদক সেবন করে। আমরা প্রাথমিকভাবে তাদের অভিভাবকদের সর্তক করে, মুসলেকা নিয়ে ছেড়ে দিয়েছি। আদর্শ সমাজ গঠনে এসব কোমলমতি কিশোরদের বিপথগামী হতে দিতে পারিনা। সন্ত্রাস ও মাদক মুক্ত সমাজ গঠনই আমার মূল অঙ্গিকার। ” কিশোর গ্যাং নির্মূল এ অভিযানকে স্বাগত জানিয়েছে এলাকাবাসী।

তানজীন মাহমুদ (তনু), নিজস্ব প্রতিনিধি