আগামী ২০২১ সালের ৩০ জুনের মধ্যে খুলে দেওয়া হবে পদ্মা সেতু: কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ২০২১ সালের ৩০ জুনের আগেই পদ্মা সেতু যান চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ সেতুর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন।

আজ বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে পদ্মা সেতু নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়নে সরকারের ঋণ পরিশোধের জন্য অর্থ বিভাগ ও বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষের মধ্যে ঋণচুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, সংযোগ সড়কের কাজের অগ্রগতি হয়েছে ১০০ শতাংশ। মূল সেতুর বাস্তবায়ন কাজের অগ্রগতি ৮৩ শতাংশ, আর্থিক অগ্রগতির ৭২ শতাংশ। নদীশাসন কাজের বাস্তব অগ্রগতি ৬২ শতাংশ এবং আর্থিক অগ্রগতির ৪৮ শতাংশ।

তিনি জানান, নদীশাসন কাজের চুক্তিমূল্য ৮ হাজার ৭০৭ কোটি ৮১ লাখ টাকা। এ পর্যন্ত ব্যয় হয়েছে ৪ হাজার ১ ৮৪ কোটি ৪০ লাখ টাকা। ৪২টি পিলারের (পিয়ার) মধ্যে ৩১টি পিলার স্থাপনের কাজ শেষ হয়েছে। বাকি ১১টি পিলার স্থাপনের কাজ ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ হবে। মাওয়া অংশে এ পর্যন্ত টাস্ট এসেছে ২৭টি। এর মধ্যে স্প্যান বসানো হয়েছে ১৪টি। বাকি স্প্যানগুলোর কাজ চীনে শেষ পর্যায়ে রয়েছে। রেলওয়ে স্ল্যাবের জন্য মোট ২ হাজার ৯৫৯টি প্রি-টাস্ট স্ল্যাবের প্রয়োজন।

এর মধ্যে ২ হাজার ৭৫৪টি স্ল্যাব তৈরির কাজ শেষ হয়েছে। বাকি স্ল্যাবের কাজ এ বছরের সেপ্টেম্বরের মধ্যে শেষ হবে।সেতুমন্ত্রী বলেন, মূল সেতুর কাজের চুক্তিমূল্য ১২ হাজার ১৩৩ কোটি ৩৯ লাখ টাকা। এ পর্যন্ত ব্যয় হয়েছে ৮ হাজার ৭৩২ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। মূল সেতুর ব্যয় ততটা বাড়বে না।

পদ্মা সেতুর ব্যয় বাড়ছে বলে যা বলা হচ্ছে তা মূলত জমির বেশি দাম ও ট্যাক্স পরিরেশাধের কারণে। ২০১০ সালের এস্টিমেট অনুয়ায়ী এ ব্যয় ধরা হয়েছে।এ সময় সেতু বিভাগের সিনিয়র সচিব আনোয়রুল ইসলাম, পদ্মা সেতু প্রকল্পের পরিচালক শফিকুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।