কেবল জুলাই মাসেই ৪৫০ জন নারী ও শিশু ধর্ষণের শিকার

পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের সমন্বয়ে চলতি বছরের কেবল জুলাই মাসেই মোট ৪৫০ জন নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের শিকার হয়েছে। এ মাসে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে মোট ১৭০টি। 

এর মধ্যে ধর্ষণের শিকার হয়েছে ১৩৭ জন, গণধর্ষণের শিকার হয়েছে ২৩ জন, ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে ১০ জনকে এবং ধর্ষণের কারণে আত্মহত্যা করতে বাধ্য হয়েছে একজন।

এছাড়া ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে ৩০ জনকে। বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ ১৪টি জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত ঘটনার ভিত্তিতে এ তথ্যে তৈরি করেছে।

তথ্যানুযায়ী, শ্লীলতাহানির শিকার হয়েছে ১০ জন। যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছে ২২ জন। অ্যাসিডদগ্ধের শিকার হয়েছে দুই জন। অগ্নিদগ্ধের শিকার হয়েছে চার জন। অপহরণের ঘটনা ঘটেছে মোট ১৬টি এবং অপহরণ চেষ্টার ঘটনা ঘটেছে একটি। পতিতালয়ে বিক্রি করা হয়েছে এক জনকে।

বিভিন্ন কারণে ৫৯ জন নারী ও কন্যাশিশুকে হত্যা করা হয়েছে এবং তিন জনকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। যৌতুকের কারণে নির্যাতনের শিকার হয়েছে ১০ জন। এর মধ্যে হত্যা করা হয়েছে তিন জনকে। শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছে ২৬ জন।

এছাড়া গৃহকর্মী নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে দুটি। উত্ত্যক্তের শিকার হয়েছে ৯ জন। উত্ত্যক্তের কারণে আত্মহত্যা করেছে এক জন। বিভিন্ন নির্যাতনের কারণে ১৬ জন আত্মহত্যা করতে বাধ্য হয়েছে। এর মধ্যে আত্মহত্যায় প্ররোচনার শিকার আট জন এবং ২১ জনের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে।

বাল্যবিবাহের ঘটনা ঘটেছে ২৫টি। এর মধ্যে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধের চেষ্টা করা হয়েছে ১১টি। এছাড়া ফতোয়ার শিকার হয়েছে তিন জন এবং নানাভাবে নির্যাতনের শিকার হয়েছে ১৮ জন।

এদিকে রবিবার ধর্মবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহ ও বিমান প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী সৌদি আরবে পৌঁছেছেন।