ডেঙ্গু টেস্টের ফি বেশি নিলে অভিযোগ জানাবেন যে নম্বরে

রাজধানীসহ সারাদেশে বেড়েছে ডেঙ্গু জ্বরের প্রকোপ। সর্বশেষ পাওয়া তথ্যনুযায়ী ডেঙ্গু ছড়িয়েছে ঢাকাসহ ৬১ জেলায়। আর গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন অন্তত ১৩৩৫ জন। ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত রোগীদের ঠাঁই মিলছে না ঢাকাসহ গোটা দেশের হাসপাতালগুলোতে। এই জ্বরে আক্রান্ত হলে একদিকে শরীর যেমন দুর্বল হয়ে পড়ে অন্যদিকে এর প্রভাব শরীরে থেকে যায় দীর্ঘদিন।

এছাড়া ডেঙ্গু প্রতিরোধে সবাইকে যার যার অবস্থানে থেকে সক্রিয় হওয়ার এবং মশার বংশ বিস্তার রোধে বাড়ি, কর্মস্থল ও আশপাশের এলাকা পরিষ্কার রাখার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এমতাবস্তায় ডেঙ্গু জ্বর শনাক্তকরণ থেকে শুরু করে ডেঙ্গু সংক্রান্ত বিভিন্ন টেস্টের ফি নির্ধারণ করে দিয়েছে সরকার। নির্ধারিত ফি’র অতিরিক্ত টাকা নিলে অভিযোগের জন্য হটলাইন চালু করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর। এছাড়া ইমেইল করেও অভিযোগ করতে পারবেন ভোক্তারা।

ডেঙ্গু টেস্ট ফি’র ব্যাপারে অভিযোগের বিষয়ে সরাসরি ০১৬২৪২৭৬০১২ নম্বরে ফোন করে অভিযোগ করা যাবে। এছাড়া dddhakadncrp@gmail.com এবং dd-dhaka@dncrp.gov.bd ঠিকানায় অতিরিক্ত ফি’র প্রমাণসহ ইমেইল করা যাবে।

এ বিষয়ে অধিদফতরের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বলেন, প্রতিদিনই ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। সরকার ডেঙ্গু টেস্টের ফিসহ এ রোগের চিকিৎসার খরচ বিষয়ে বেশ কিছু নির্দেশনা দিয়েছে। সরকারের সংস্থা হিসেবে বিষয়টি আমরা তদারকি করছি।

এর আগে গত রোববার (২৮ জুলাই) স্বাস্থ্য অধিদফতর ডেঙ্গু চিকিৎসার ফি নির্ধারণ করে দেয়। সরকার নির্ধারিত ফি অনুযায়ী, এখন থেকে ডেঙ্গু টেস্টের (ডেঙ্গু Ns1 পরীক্ষা) ফি ৫০০ টাকার বেশি নেওয়া যাবে না। যার পূর্ব মূল্য ছিল ১ হাজার ২০০ থেকে ২ হাজার টাকা। এছাড়া IgM + IgE অথবা IgM/ IgE- ৫০০ টাকা (সর্বোচ্চ), যার পূর্ব মূল্য ছিল ৮০০ থেকে ১ হাজার ৬০০ টাকা। CBC (RBC + WBC + Platelet + Hematocrit)- ৪০০ টাকা (সর্বোচ্চ), যার পূর্ব মূল্য ছিল ১ হাজার টাকা।

স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে জানানো হয়েছে, এই মূল্য তালিকা ২৮ জুলাই থেকে কার্যকর হবে। পরবর্তী ঘোষণা না আসা পর্যন্ত এই মূল্য তালিকা কার্যকর থাকবে।