স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর গলায় রশি দিয়ে স্বামীর আত্মহত্যা

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলায় দাউদ হোসেন (৬০) ও সাইদা খাতুন (৫৫) নামে এক দম্পতির মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে উপজেলার পোড়াপাড়া গ্রাম থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয়রা প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন দাম্পত্য কলহের জেরে স্ত্রী সাইদা খাতুনকে শ্বাসরোধে হত্যার পর স্বামী নিজে গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। ওই দম্পতির মরদেহ উদ্ধার করে মেহেরপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দাউদ হোসেন ও সাইদা খাতুনের মধ্যে বেশ কয়েকদিন ধরে দাম্পত্য কলহ চলে আসছিল। শনিবার দাউদ শ্যালো ইঞ্জিনচালিত ভ্যানে কয়েকজন যাত্রী নিয়ে গাংনীর দিকে যাচ্ছিলেন। এ সময় বাড়ির কাছে পৌঁছালে দাউদ ছাতা নিয়ে আসার নাম করে যাত্রীদের নামিয়ে দিয়ে নিজ বাড়িতে যান। ১০ মিনিটের মধ্যে দুইজনের মৃত্যুর খবর জানতে পারেন স্থানীয়রা।

স্থানীয়রা আরও জানান, স্ত্রী সাইদা খাতুনের মরদেহ ঘরের বিছানায় এবং স্বামী দাউদ হোসেনের মরদেহ বাড়ির পেছনের ইটভাটার পাশ থেকে উদ্ধার করা হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে গাংনী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওবাইদুর রহমান বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যার পর স্বামী আত্মহত্যা করেছেন। দাউদ হোসেন যে আত্মহত্যা করেছেন এ বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই। তবে স্ত্রীর মরদেহ নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন ছাড়া এ বিষয়ে পরিষ্কার বলা যাচ্ছে না। এ ঘটনায় মামলা হবে।