ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবি, ১৫০ জনের মৃত্যুর আশঙ্কা

লিবিয়া থেকে ইউরোপে যাওয়ার পথে ভূমধ্যসাগরে নৌকাডুবিতে ১৫০ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। বেঁচে যাওয়া যাত্রীদের কাছ থেকে প্রাথমিকভাবে এ তথ্য জানা গেছে। তবে শরণার্থীরা একটি না দু’টি নৌকায় ছিল তা স্পষ্ট নয়।

জাতিসংঘ শরণার্থী সংস্থা ইউএনএইচসিআর’র মুখপাত্র চার্লি ইয়াক্সলে বলেছেন, লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলির ১২০ কিলোমিটার পূর্বের শহর আল-খোমস থেকে ছেড়ে যাওয়া নৌযানে প্রায় তিনশ’ মানুষ ছিল। এর মধ্যে স্থানীয় জেলেরা ১৫০ জনকে উদ্ধার করেছে।

লিবিয়ায় যুদ্ধাবস্থা থেকে বাঁচতে ইউরোপে যাওয়ার সময় ভূমধ্যসাগরে ডুবে এর আগেও মারা গেছেন বহু মানুষ। এ দুর্ঘটনায় মৃতের সংখ্যা নিশ্চিত হলে এ বছর এটিই হবে ভূমধ্যসাগরে শরণার্থী নৌকাডুবিতে সবচেয়ে বেশি মানুষের মৃত্যুর ঘটনা।

এ বছরের প্রথম চারমাসে ভূমধ্যসাগরের একই রুটে প্রায় ১৬৪ জন শরণার্থীর মৃত্যু হয়েছে। গত মে মাসে তিউনিসিয়া উপকূলে শরণার্থী নৌকা উল্টে অন্তত ৬৫ জন নিহত হয়।

লিবিয়া থেকে শরণার্থীরা ইউরোপে পাড়ি দিতে গিয়ে প্রতিবছরই এমন দুর্ঘটনার শিকার হলেও এই প্রবণতা কমছে না। বিশেষজ্ঞরা এ ধরণের অনিরাপদ যাত্রা থেকে বিরত থাকতে মানুষকে পরামর্শ দিয়ে থাকেন।