রামপুরায় চোর সন্দেহে যুবককে গণপিটুনি দিয়ে হত্যা, সড়ক অবরোধ

রাজধানীর রামপুরায় এক শ্রমিককে চোর সন্দেহে গণপিটুনি দিয়ে ‘হত্যা’ করার ঘটনায় সড়ক অবরোধ করেছেন অন্য শ্রমিকরা। বৃহস্পতিবার (২৫ জুলাই) বেলা ২টা থেকে তারা রামপুরার আবুল হোটেল থেকে রামপুরা হাজিপাড়ার সড়কে অবস্থান নিয়েছেন।

হাতিরঝিল থানার ডিউটি অফিসার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মনোয়ারুল বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘এক শ্রমিকের মৃত্যুর সংবাদে তারা সড়ক অবরোধ করেছে। ঘটনাস্থলে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা আছেন। তারা কথা বলে তাদের সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করছেন।’

প্রত্যক্ষদর্শী এক শ্রমিক সাংবাদিকদের জানান, আজ সকালে হাজিপাড়ার ইজি গার্মেন্টে দেলোয়ার নামে এক শ্রমিককে চোর সন্দেহে গণপিটুনি দেয়া হয়। এতে সে মারা যায়। কিন্তু দেলোয়ার চোর ছিল না। সে ইস্ট ফ্যাশন গার্মেন্টের কার্টিং সহকারী ছিল। যারা দেলোয়ারকে হত্যা করেছে তাদের গ্রেফতারের দাবিতে আমরা সড়কে থাকব।

এর আগে গত ২০ জুলাই রাজধানীর উত্তর বাড্ডায় মেয়েকে ভর্তি করানোর তথ্য জানতে স্থানীয় একটি স্কুলে যান তসলিমা বেগম রেনু (৪০) নামে এক নারী।

এ সময় তাকে ছেলেধরা সন্দেহে প্রধান শিক্ষকের কক্ষ থেকে টেনে বের করে গণপিটুনি দিয়ে হত্যা করা হয়।