বাসা ভাড়া নিয়ে দেহ ব্যবসা, হাতেনাতে ধরা খেয়েছেন দুই নারী

নীলফামারীর সৈয়দপুরে বাসা ভাড়া নিয়ে দেহ ব্যবসা করতে গিয়ে খদ্দেরসহ স্থানীয়দের কাছে হাতেনাতে ধরা খেয়েছেন দুই নারী। শনিবার সকাল ১১টার দিকে সৈয়দপুর শহরের নয়াটোলার এলাকার একটি ভাড়াবাসা থেকে তাদের আটক করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকার দেহ ব্যবসায় জড়িত নারী ও তার খদ্দেরকে এক মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং যার বাসায় এই অসামাজিক কর্যক্রম পরিচালিত হতো সেই ভাড়াটিয়া নারীকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, সৈয়দপুর শহরের নয়াটোলা মহল্লার ওই বাড়িটি ভাড়া নেন এক নারী। তিনি সেখানে অন্য নারীদের দিয়ে দেহ ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিলেন। বিষয়টি বাড়ির মালিককে জানানো হলেও তিনি কোনো ব্যবস্থা না নেয়ায় এলাকাবাসী তাদের ওপর নজরদারি করতে থাকে। শনিবার সকালে খদ্দেরসহ এক নারী ও ভাড়াটিয়াকে হাতেনাতে আটক করে পুলিশে দেয় এলাকাবাসী। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত তাদের কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড দেন।

সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহজাহান পাশা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, দেহ ব্যবসায় জড়িত ওই নারী ও তার খদ্দেরকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।