ইডেন কলেজে ১১৮ পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাস ১ জন, কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি

দুটি বিষয়ে আলাদাভাবে ফেল করায় মাত্র একজন শিক্ষার্থী পাস করেছেন। এই বিরল ঘটনাটি ঘটেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত রাজধানীর ইডেন মহিলা কলেজের দর্শন বিভাগের প্রথম বর্ষের ফাইনাল পরীক্ষায়। মোট ১১৮ পরীক্ষার্থীর মধ্যে সব বিষয়ে পাস করেছেন মাত্র একজন পরীক্ষার্থী।

জানা গেছে, দর্শন বিভাগের ফলাফলে দর্শনের ভূমিকা বিষয়ে ১০১ জন এবং সাধারণ নীতিবিদ্যা বিষয়ে ৯০ জন শিক্ষার্থী ফেল করেছেন। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, খাতার অবমূল্যায়নের ফলেই এভাবে গণহারে ফেল করেছে শিক্ষার্থীরা। তাদের অভিযোগ, বারবার সমস্যা সমাধানের কথা বলা হলেও কলেজ কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ নেয়নি৷

ইডেন মহিলা কলেজের ২০১৭-১৮ সেশনের দর্শন বিভাগের এক শিক্ষার্থী বলেন, বিনা নোটিসে আমাদের ওপর নতুন নতুন নিয়ম কার্যকর করা হচ্ছে, যা আমাদের জন্য ভোগান্তির কারণ হচ্ছে। এ ছাড়া আমাদের গণহারে ফেল করানো হয়েছে৷ একটি বিভাগের সবাই তো ফেল করার মতো ছাত্রী না, তাহলে গণহারে ফেল কেন?

এদিকে দ্রুত ফল প্রকাশসহ বিভিন্ন দাবিতে এবং ‘গণহারে ফেল’ করানোর প্রতিবাদে রাজধানীর নীলক্ষেত মোড় অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা। এসয় দ্রুত সমস্যার সমাধানের দাবি জানিয়েছেন তারা।

আজ মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) সকাল থেকে বিভিন্ন কলেজের শিক্ষার্থীরা সেখানে অবস্থান নেন। এসময় তারা অভিযোগ করেছেন, ভালো পরীক্ষা দেওয়া সত্ত্বেও তাদেরকে গণহারে ফেল করানো হয়েছে।

শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন, নতুন নিয়ম কার্যকর করায় ভোগান্তিতে পড়ছেনে তারা। এভাবে গণহারে ফেল মেনে নেয়া যায় না। এছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম অনুযায়ী সিজিপিএ ২.০০ এর কম পেলে ফেল হিসেবে ধরা হয়। তবে শিক্ষার্থীদের এ তথ্য জানানো হয়নি বলে তারা অভিযোগ করেন। তারা অবিলম্বে এ সমস্যার সমাধান দাবি করেন।

তারা বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত করার পর সেশনজট কমার পাশাপাশি শিক্ষার মান বাড়বে। তবে সে আশা পূরণ হয়নি। ফল প্রকাশে বাড়তি সময় নেওয়া হচ্ছে। এসময় অবিলম্বে দাবি মেনে না নেওয়া হলে আরও কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারি দেন তারা।