চীন-পাকিস্তানকে ঠেকাতে ভারতীয় বিমান বাহিনীর হাতে আসছে ভয়ঙ্কর যুদ্ধবিমান

এবছরই ভারতীয় বিমান বাহিনীর হাতে চলে আসছে ভয়ঙ্কর যুদ্ধবিমান। শক্তিশালী ঐ বিমান প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে আকাশ শক্তির দিক দিয়ে সব হিসেব পাল্টে দেবে। ভারতের উপ বিমানবাহিনী প্রধান জানিয়েছেন চীন ও পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভয়ঙ্কর অস্ত্র হয়ে উঠবে রাফাল ও সু-৩০ এমকেআই জুটি। আকাশ পথে যে কোনো যুদ্ধবিমানকে সহজেই রুখে দিতে সক্ষম হবে ভারত।

ভারতীয় সংবাদসংস্থা এএনআইকে দেশটির এয়ার ভাইস চিফ মার্শাল আরকেএস ভাদুড়িয়া বলেন, ‘সুখোই সু-৩০ ও রাফাল একসঙ্গে কাজ শুরু করলে তা আমাদের শত্রুর বিরুদ্ধে ভয়ঙ্কর অস্ত্র হয়ে উঠবে। পাকিস্তান কিংবা অন্য কেউ, এই জুটিকে ভয় পাবে।’

তিনি জানান, ‘যে কোনও ধরণের হামলা চালালে ভয়ঙ্কর ক্ষতির সম্মুখীন হবে পাকিস্তান। কারণ রাফাল ও সুখোই সু-৩০ বিমানের সাহায্যে আরও নিখুঁত নিশানায় আঘাত করতে পারবে ভারতীয় বিমানবাহিনী’।

উল্লেখ্য, রাফালের পাশাপাশি রাশিয়ার কাছ থেকে ১৮টি সুখোই সু-৩০ ও ২১টি মিগ-২৯ যুদ্ধবিমান কেনার পরিকল্পনা করেছে ভারতীয় বিমানবাহিনী। বর্তমানে তাদের হাতে রয়েছে ২৭২টি সুখোই সু-৩০ ও ৬৯ মিগ-২৯ বিমান। পাকিস্তান ও চিনের সঙ্গে দুটি ফ্রন্টে লড়াই করতে গেলে প্রয়োজন অন্তত ৪২ স্কোয়ার্ডন বিমান। বিমানবাহিনীর বায়ুসেনার হাতে বর্তমানে রয়েছে ৩১ স্কোয়ার্ডন বিমান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here