বিআইডব্লিউটিএ’র অভিযানে বুড়িগঙ্গা নদীর তীরে ১১৯টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

বিআইডব্লিউটিএ’র অভিযানে কেরানীগঞ্জে বুড়িগঙ্গা নদীর দুই তীরে ১১৯টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে। এ সময় দুইটি প্রতিষ্ঠানের কিছু জিনিসপত্র নিলামে বিক্রি করে ১৫ লাখ টাকা আদায় করা হয়। বুধবার (১০ জুলাই) সকাল ৯টায় বাবু বাজার ব্রিজের বাদামতলী ঘাট থেকে অভিযান শুরু হয়। বুড়িগঙ্গা নদীর শ্মশানঘাট পর্যন্ত উচ্ছেদ অভিযান চলে।

উচ্ছেদ করা স্থাপনাগুলোর মধ্যে রয়েছে দোতলা ভবন একটি, একতলা ভবন সাতটি,আধাপাকা ১৫টি, টিনের ঘর ৬৫টি ও দোকানঘর ৩১টি। এদিকে বুড়িগঙ্গা নদীর বাদামতলী ঘাটে সরকারি জায়গায় টিন, বাঁশ, বালু ও পাথর অবৈধভাবে রাখায় ওই মালামালগুলোর মালিককে খোঁজা হয়। কিন্তু মালিকদের না পেয়ে সেগুলো ৬ লাখ টাকায় নিলামে বিক্রি করা হয়।

অপরদিকে বুড়িগঙ্গা নদীর চরমীরের বাগ এলাকায় নদীতে একটি জাহাজ দীর্ঘদিন ধরে ফেলে রাখায় পানি প্রবাহ বাধাগ্রস্ত হওয়ার অভিযোগে জাহাজের মালিককে খোঁজা হয়। মালিককে না পেয়ে ওই জাহাজটি ৯ লাখ টাকায় নিলামে বিক্রি করা হয়।

বিআইডব্লিউটিএ- এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে এই উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিআইডব্লিউটিএ’র (ঢাকা নদী বন্দর) যুগ্ম পরিচালক একেএম আরিফ উদ্দিন, উপপরিচালক মো. মিজানুর রহমান, সহকারী পরিচালক মো. নুর হোসেন। চতুর্থ দফায় দ্বিতীয় পর্যায়ের এই উচ্ছেদ অভিযান নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার আলীগঞ্জ পর্যন্ত চলবে বলে জানা গেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here