ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু, ডাক্তারসহ ক্লিনিক মালিক পলাতক

ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার লক্ষ্মীপাশায় ‘মা’ নামের এক ক্লিনিকে বিরুদ্ধে । এ ঘটনার পর থেকে ক্লিনিকের মালিক ও ডাক্তার পলাতক। শুক্রবার (৫ জুলাই) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

পুলিশ ও নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, প্রসব বেদনা নিয়ে শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে মা ক্লিনিকে ভর্তি করা হয় লোহাগড়ার পরগাতী গ্রামের কাঠ ব্যবসায়ী কামাল শেখের স্ত্রী বিলকিস বেগমকে (২৫)। চিকিৎসক তাজরুল ইসলাম তাজ বিলকিসকে ইনজেকশন দেওয়ার পর তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে তাকে অ্যাম্বুলেন্সে করে নড়াইল সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

বিলকিসের স্বামী কামাল ও তার পরিবারের সদস্যরা জানান, সদর হাসপাতালে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। হাসপাতালে আনার আগেই ক্লিনিকে বিলকিসের মৃত্যু হয়েছে।

স্বজনদের অভিযোগ ভুল চিকিৎসা দেওয়ায় তার মৃত্যু হয়েছে। এরপর সদর হাসপাতাল থেকে বিলকিসের লাশ মা ক্লিনিকের সামনে এনে বিক্ষোভ করেন স্বজনসহ স্থানীয়রা। বিলকিসের পাঁচ বছরের একটি মেয়ে সন্তান রয়েছে।

এ ব্যাপারে লোহাগড়া থানার ওসি মোকাররম হোসেন জানান, বিলকিসের মৃত্যুর পর ওই দুই চিকিৎসকসহ ক্লিনিক মালিক শেখ জাহাঙ্গীর আলম পলাতক আছেন। তবে ক্লিনিক খোলা রয়েছে। এ ঘটনায় অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।