টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে ৩ মানবপাচারকারী নিহত

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ তিন যুবক নিহত হয়েছেন। তারা হলেন- কোরবান আলী (৩০), আবদুল কাদের ও আবদুর রহমান (৩০)।

সোমবার দিনগত রাত পৌনে ৩টার দিকে উপজেলার মহেশখালিয়াপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে তিনটি দেশীয় তৈরি আগ্নেয়াস্ত্র, ১৫ রাউন্ড গুলি ও ২০ রাউন্ড গুলির খোসা উদ্ধার করা করেছে পুলিশ। টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাস এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশের দাবি, নিহত তিন যুবক মানবপাচার মামলার পলাতক আসামি। কোরবান আলী টেকনাফের সাবরাং নয়াপাড়ার আবদুর শুক্কুরের ছেলে, আবদুল কাদের পৌরসভার কেকেপাড়ার আলী হোসেনের ছেলে ও একই এলাকার আবদুর রহমান সুলতান আহম্মদের ছেলে।

তিনি জানান, সোমবার রাতে ওই তিন যুবক উপজেলার মহেশখালিয়াপাড়া ঘাটে অবস্থান করছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে টেকনাফ থানা পুলিশের একটি দল সেখানে অভিযান চালায়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে আবদুল কাদের, কোরবান আলী ও আবদুর রহমানের সহযোগীরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে।

আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি করে। একপর্যায়ে তারা পিছু হটে। পরে ঘটনাস্থল থেকে ওই তিন মানবপাচারকারীকে গুলিবিদ্ধ ঘটনাস্থলে পাওয়া যায়। তদের উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় টেকনাফ থানার সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মো. সায়েফ কনস্টেবল মং ও মো. শুক্কুর আহত হয়েছেন। তারা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here