খোঁজ মিলছে না ওসি সোনাগাজী থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেমের

ফেনীর সোনাগাজী থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন রংপুরে নেই। তার অবস্থান কোথায় তা কেউ বলতে পারছেন না। তবে পুলিশের ধারণা, তিনি ঢাকায় অবস্থান করছেন। গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির পর তিনি গা ঢাকা দিয়েছেন এমনটাই ধারণা করা হচ্ছে।

সোমবার ঢাকার সাইবার ট্রাইবুনালের বিচারক মোহাম্মদ আসসামছ জগলুল হোসেন ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আদেশ দেন।

পুলিশের রংপুর রেঞ্জ সূত্রে জানা গেছে, সোনাগাজী থেকে গত ১০ এপ্রিল মোয়াজ্জেম হোসেনকে প্রত্যাহারের পর রংপুর রেঞ্জে বদলি করা হয়। গত ৮ মে তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করার পর গত সপ্তাহে তিনি রংপুর রেঞ্জ অফিসে যোগ দেন।  দু-তিন আগেও তাকে রংপুরে দেখা গেছে। কিন্তু এখন তিনি কোথায় আছেন, সেই তথ্য নেই পুলিশের কাছে। তবে গ্রেফতারি পরোয়ানা হাতে পেলে তাকে গ্রেফতার করা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য জানান, ‘গত সপ্তাহে ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন রংপুর রেঞ্জে যোগ দিয়েছেন। বর্তমানে তার রংপুরেই থাকার কথা। তবে শুনেছি, তিনি বর্তমানে ঢাকায় অবস্থান করছেন।’

মোয়াজ্জেম হোসেনের গ্রেফতারি পরোয়ানার বিষয়ে ডিআইজি বলেন, ‘এই বিষয়টিও আপনাদের মাধ্যমে শুনেছি। গ্রেফতারি পরোয়ানা হাতে পেলে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।’

রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি অফিসের স্টাফ অফিসার সহকারী পুলিশ সুপার শরিফুল ইসলাম জানান, কয়েকদিন আগে মোয়াজ্জেম রংপুর রেঞ্জে যোগদান করেছে। তবে শুনেছি, তিনি ঢাকা সদর দপ্তরে অবস্থান করছেন। পরোয়ানার বিষয়ে তিনি বলেন এখন পর্যন্ত কোনো কাগজ পাননি।ফেনীর সোনাগাজীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে যৌন হয়রানির অভিযোগের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের ঘটনার ভিডিও ধারণ এবং সেটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে সাইবার ট্রাইবুনালে এই মামলা করা হয়। আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনালের প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার সায়েদুল হক সুমন বাদী হয়ে গত ১৫ এপ্রিল সাইবার আদালতে এ মামলাটি দায়ের করেন।

পরে বিচারক মামলাটি পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন। পিবিআইর সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার রীমা সুলতানা তদন্ত শেষে ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে সাইবার আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন। এরপরই আদালত ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আদেশ দেন।