অসুস্থ বয়োবৃদ্ধ কৃষকের ক্ষেতের ধান কেটে মাড়াই করে দিলো ছাত্রলীগ

অসুস্থ বয়োবৃদ্ধ এক কৃষকের ক্ষেতের ধান কেটে মাড়াই করে দিলো ছাত্রলীগের কর্মীরা। শ্রমিক ও অর্থাভাবে পাকা ধান কাটতে পারছিলেন না বয়োবৃদ্ধ কৃষক আব্দুল ওয়াহেদ। এই উদ্যোগে সন্তোষ প্রকাশ করে তাদের জন্য দোয়া করলেন ধান কাটা নিয়ে বিপাকে থাকা এই বৃদ্ধ চাষী।

মেহেরপুরের গাংনীর জোরপুকুরিয়া গ্রামের কৃষক আব্দুল ওয়াহেদ অসুস্থ এবং অর্থাভাবে থাকা চাষীর মাঠের ১০ কাঠা জমিতে বোরো ধান পেকে যায়। কিন্তু তার পক্ষে কাটা মাড়াই সম্ভব হচ্ছিল না। বিষয়টি টের পেয়ে এই কৃষকের পাশে দাঁড়াই গাংনী পৌর ছাত্রলীগ।

গাংনী পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ওয়ালিদ আল জাবের প্লাবন, ছাত্রলীগ নেতা কৌশিক, বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ গাংনী সভাপতি জামিরুল ইসলাম ও মেহেরপুর ২ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাম্বাসেডর আমির হামজা সহ পৌর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা আজ সকাল থেকে জোড়পুকুরিয়া মাঠে ওই চাষির ধান কাটা শুরু করেন। ১১টার দিক থেকে ধান মাড়াই করা শুরু হয়। মাড়াই করা ধান বস্তায় ভরে ওই জমির মালিকের বাড়ি পৌঁছে দিলেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এতে খুশি হয়ে তাদের জন্য দোয়া করলেন অসহায় এই চাষী।

গাংনী পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক প্লাবন বলেন, আমরা শুধু ধান কেটে দিয়ে মাঠে ফেলে রেখে আসবো না। মাড়াই করে বস্তা ভরে কৃষকের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিয়ে আসবো। এমপির নির্দেশে অসহায় চাষী খুঁজে বের করার চেষ্টা করছি আমরা।

ধান কাটার এই কাজের সময় উপস্থিত ছিলেন সাহারবাটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোখলেসুর রহমান স্বপন ও জোড়পুকুরিয়া গ্রামের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।