যশোরে তিন পুলিশ সদস্যকে সোনার বারসহ আটক

যশোরের শার্শা থানার তিন পুলিশ সদস্যকে সোনার বারসহ আটক করার পর জেলহাজতে প্রেরণ করেছেন আদালত। মঙ্গলবার (২১ মে) তাদেরকে জেলহাজতে পাঠানো হয়। চোরাকারবারীদের কাছ থেকে সোনা উদ্ধারের পর তা আত্মসাতের অভিযোগে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছেন, সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) তবিবুর রহমান ও রঞ্জন কুমার মিত্র এবং কনস্টেবল তুষার সরকার।

যশোর পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আনছার উদ্দিন জানান, অভিযুক্ত তিন পুলিশ সদস্যকে আটকের পর মঙ্গলবার তাদেরকে আদালতে নেওয়া হয়। আদালত তাদেরকে জেলহাজতে প্রেরণের আদেশ দিয়েছেন।

তিনি জানান, ১৯ মে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে ওই তিন পুলিশ সদস্য শার্শা উপজেলার সামটা জামতলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পাশে দুই ব্যক্তির কাছ থেকে আট পিস সোনার বার উদ্ধার করেন। এরপর তাদেরকে ছেড়ে দিয়ে সোনার বারগুলো আত্মসাত করেন তারা। ওই দুই ব্যক্তি হচ্ছেন শার্শা উপজেলার মহিষাকুড় গ্রামের সাজেদুর রহমান ও আকতারুল ইসলাম।

এদিকে গোপনে বিষয়টি জানতে পারেন জেলার উর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তারা। ওইদিন রাতেই তাদেরকে ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় এবং এএসআই তবিবুর রহমানের পকেট থেকে সোনাগুলো উদ্ধার করা হয়।

এ ব্যাপারে পরদিন ২০ মে তিনজনের বিরুদ্ধে শার্শা থানায় মামলা হয়। মঙ্গলবার দুপুরের দিকে তাদেরকে আদালতে নেওয়া হলে বিচারক তাদেরকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।