বৈঠকে আসেননি ওয়াসার এমডি, সংসদীয় কমিটির ক্ষোভ!

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মতো রাজধানীতে সুপেয় পানি সরবরাহ বৃদ্ধি ও নাগরিক সেবা বাড়াতে ওয়াসাকে উত্তর দক্ষিণে ভাগ করার জন্য সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি। একইসঙ্গে রাজধানীর পানি সংকট বিষয়ে জানতে ঢাকা ওয়াসার এমডিকে সংসদীয় কমিটিতে ডাকা হলেও তিনি বৈঠকে না আসায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন কমিটির সদস্যরা।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত অনুমিত হিসাব সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির ২য় বৈঠকে ক্ষোভ প্রকাশ করেন কমিটির সদস্যরা।

এ সময় ঢাকা ওয়াসা প্রকল্পগুলোর কাজের অগ্রগতি সন্তোষজনক না হওয়ায় এবং জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের বিভন্ন প্রকল্পের বাস্তবায়নের ধীর গতিতে ক্ষোভ প্রকাশ করে কমিটি।

বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন কমিটির সভাপতি উপাদক্ষ মো. আব্দুস শহীদ। কমিটির সদস্য নুর-ই-আলম চৌধুরী, শেখ ফজলে নূর তাপস, আহসান আদেলুর রহমান এবং ওয়াসিকা আয়শা খান বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন।

বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি আব্দুস শহীদ সাংবাদিকদের বলেন, ঢাকা ওয়াসার এমডিকে নিয়ে অনেক বিতর্ক হলো এতদিন। এ জন্য ওয়াসার বিষয়ে তার কাছে জানার জন্য সংসদীয় কমিটিতে ডাকা হয়েছিল। কিন্তু তিনি না আসায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন কমিটির সদস্যরা। কমিটির সদস্যরা পরবর্তী বৈঠকে ওয়াসার এমডির উপস্থিতি নিশ্চিত করার তাগিদ দেয়।

জানা যায়, বৈঠকে উপস্থিত স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিবের কাছে ওয়াসার এমডির অনুপস্থিতির কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে উনাকে (এমডি) পত্রের মাধ্যমে জানানো হয়। একই সঙ্গে টেলিফোনেও বিষয়টি অবহিত করা হয়।

সংসদের গণসংযোগ বিভাগ জানায়, কমিটি জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের আওতাধীন গৃহীত প্রকল্পের বিষয় আগামী আগামী ৩০ জুনের মধ্যে মূল্যায়ন রিপোর্ট প্রদানের সুপারিশ করেছে। এছাড়া ঢাকার বাইরের বিভিন্ন সিটি করপোরেশনের যেসব কর্মকর্তা বৈঠকে উপস্থিত হয়নি ব্যাখ্যাসহ পরবর্তী বৈঠকে তাদের উপস্থিতি নিশ্চিত করার সুপারিশ করে কমিটি।

এ ছাড়াও বৈঠকে স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী, বিভিন্ন প্রকল্পের প্রধানসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here