হাতেনাতে ঘুষের টাকাসহ ধরা পড়লেন সমবায় কর্মকর্তা

রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলা সমবায় সমিতি নিবন্ধনের জন্য টাকা নেওয়ার সময় সমবায় কর্মকর্তা নৃপেন্দ্র নাথ দাসকে হাতেনাতে ধরেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। মঙ্গলবার (১৪ মে) দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের পরিচালক মোহাম্মদ মোরশেদ আলমের নেতৃত্বে আট সদস্যের একটি দল ওই কর্মকর্তাকে তার কার্যালয় থেকে আটক করে।

কমিশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য বলেন, ঘুষের আট হাজার টাকা নেওয়ার সময় নৃপেন্দ্র নাথ দাসকে গ্রেফতার করা হয়।

এবিষয় দুদকের এক র্কমকর্তা জানান, সরমংলা একতা মৎস্য চাষী সমবায় সমিতির নিবন্ধনের জন্য গত ১৩ মার্চ আব্দুল বাতেন নামের স্থানীয় এক ব্যক্তি আবেদন করেন। ওই সমিতির নিবন্ধনের জন্য বাতেনের কাছে নৃপেন্দ্র নাথ ১৫ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করেন। নিরূপায় হয়ে আব্দুল বাতেন টাকা দিতে রাজি হন এবং প্রথম দফায় সাত হাজার টাকাও নেন নৃপেন্দ্রনাথ।

এরপর আব্দুল বাতেন দুদকের রাজশাহী সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে এ বিষয়ে অভিযোগ করলে দুদক ওই সমবায় কর্মকর্তাকে গ্রেফতারে প্রস্তুতি নেয়। মঙ্গলবার নিজ কার্যালয়ে ঘুষের বাকি আট হাজার টাকা নেওয়ার সময় নৃপেন্দ্র নাথ দাসকে আটক করে দুদকের দল।

তার বিরুদ্ধে গোদাগাড়ী মডেল থানায় দণ্ডবিধি ও ১৯৪৭ সালের ২ নং দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫ (২) ধারায় মামলা দায়ের করেছে বলে রাজশাহী জেলা সমন্বিয় দুদক অফিসের উপ-পরিচালক মোঃ জাহাঙ্গীর আলম জানান।