দেশে ফিরবেন ওবায়দুল কাদের, সেতু নৌকা নিয়ে অপেক্ষায় জাকির

অসুস্থ হয়ে সিঙ্গাপুরে অবস্থান করছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। আজ সন্ধ্যায় দেশে ফেরার কথা রয়েছে তার। ভালোবাসার মানুষগুলো তাকিয়ে আছে তাঁর ফিরে আসার প্রতিক্ষায়। তার মধ্যে অন্যতম একজন এই জাকির তালুকদার।

চেয়ে আছেন চাতক পাখির মত প্রিয় ব্যক্তির ফিরে আাসার পথপানে। আর ফিরে আসলেই প্রিয় ব্যক্তির হাতে তুলে দিবেন প্রায় দুই-তিন মাসের সাধনায় তৈরি করা তার এই “সেতু নৌকা”।

প্রায় বিশ হাজার টাকা খরচ করে দিন-রাত অক্লান্ত পরিশ্রমে জাকির তালুকদার তৈরি করেছেন এই “সেতু নৌকা”। সংসদ ভবনের দ্বিতীয় গেইটের পাশেই চোখে পড়বে জাকির তালুকদারের এই নৌকা সেতুটি।

জাকির তালুকদারকে জিজ্ঞেস করলাম, আপনি কেন এই নৌকা সেতু তৈরি করেছেন? তিনি বলেন, ওবায়দুল কাদের মন্ত্রী আমার খুব প্রিয় একজন ভালো লোক। দেশের জন্য তিনার রয়েছে অনেক অবদান। তাই আমি তিনার জন্য আমার নিজ থেকে সম্মান জানাতে এই নৌকা সেতু তৈরি করেছি।

আপনি কি আওয়ামী লীগ করেন? না, আমি কোন রাজনীতি করি না। আগে দোকানদারি করতাম। দুই মাস আগে দোকান করা ছেড়ে দিয়ে রাত-দিন নৌকা সেতু তৈরিতে ব্যস্ত। কোন রাজনীতি করি না। আর রাজনীতির জায়গা থেকে এই উপহারও দিচ্ছি না। ভালোবাসি তাই তৈরি করেছি। ভালোবাসার মানুষকে ভালোবাসার জায়গা থেকে এই নৌকা সেতু দিচ্ছি।

আপনাকে এই নৌকা তৈরি করতে কেউ আর্থিকভাবে সহযোগিতা করেছিলো? না, আমাকে কেউ সহযোগিতা করে নাই। আমার জমানো টাকা দিয়েই এই নৌকা সেতুটি তৈরি করেছি।

এছাড়াও জাকির তালুকদারের নৌকা সেতুটির উপর কাগজে লেখা আছে-
“আমি জাকির তালুকদার, এই নৌকা সেতুটি তৈরি করেছি সেতুমন্ত্রীকে উপহার দিতে চাই। আর সবার কাছে দোয়া চাই সে যেন ভালো হয়ে সম্পূর্ণ কাজগুলো ভালোভাবে করে যেতে পারে। সেই প্রত্যাশা আমি করি। আর আমি সকল মানুষের কাছে আবেদন জানাই, আমি যেন এই “নৌকা সেতু” তাঁর কাছে পৌঁছাতে পারি।

অন্য একটা কাগজে লেখা আছে, এখানে যে গাড়িগুলো দেখেন সব মাটি দিয়ে তৈরি। ভাস্কর্য ও মিনার মাটি দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। এই ভাস্কর্যটি আমার নিজের বুদ্ধি ও মেধা দিয়ে তৈরি করা হয়েছে।

এভাবেই জাকির তার ভালোবাসা ফুটিয়ে তুলেছে নৌকা সেতু তৈরি করার মাধ্যমে। জাকিরের প্রত্যাশা সে নিজ হাতে প্রিয় ব্যক্তি ওবায়দুল কাদেরের হাতে এই নৌকা সেতুটি তুলে দিবেন। এই জন্য তিনি সবার দোয়া এবং সহযোগিতা কামনা করছেন।