মিয়ানমারে দুর্ঘটনায় আহতদের চিকিৎসার খরচ দেবে বাংলাদেশ বিমান

মিয়ানমারে উড়োজাহাজ দুর্ঘটনায় আহত যাত্রীদের চিকিৎসা ব্যয়ভার বহন করবে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস। এদিকে দুর্ঘটনায় আহত ৩৫ যাত্রীর মধ্যে চারজন ইয়াঙ্গুন হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছে। বাকিরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।বৃহস্পতিবার (৯ মে) রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী এয়ারলাইনসের জেনারেল ম্যানেজার (পিআর) শাকিল মেরাজ সাংবাদিকদের একথা বলেন।

শাকিল মেরাজ জানান, আহতদের চিকিৎসা ও অন্যান্য সকল ধরনের সেবা ও সহযোগিতা দিতে বিমানের পক্ষ থেকে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এছাড়া মিয়ানমারে বাংলাদেশ দূতাবাস হাসপাতালে ভর্তি যাত্রীদের সার্বিক বিষয়ে তদারকি ও খোঁজখবর রাখছেন।

তিনি আরও জানান, আহত যাত্রীদের সবাই এখন শঙ্কামুক্ত।

বিমান বাংলাদেশ জানায়, দুর্ঘটনার পর ১৯ জন যাত্রী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। এর মধ্যে চারজনকে চিকিৎসা শেষে বুধবার রাতেই ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

এদিকে বুধবার রাতে ইয়াঙ্গুনে দুর্ঘটনা কবলিত থেকে যাত্রীদের ফিরিয়ে আনতে বিমানের একটি বিশেষ ফ্লাইট ঢাকা ছাড়লেও আহতদের কাউকে দেশে আনতে পারেনি। তবে অপেক্ষমাণ ১৭ যাত্রী ঢাকায় ফেরে।

প্রসঙ্গত, বুধবার সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে ঢাকা থেকে বিমানের একটি ফ্লাইট ইয়াঙ্গুন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণকালে রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ে। বৈরী আবহাওয়ার কারণেই ফ্লাইটটি দুর্ঘটনায় পড়ে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।

উড়োজাহাজটিতে বুধবার বিমানের পক্ষ থেকে ৩৩ জন যাত্রী ছিল বলা হলেও আজ জানানো হয়েছে এতে আরও দুইজন গ্রাউন্ড ইঞ্জিনিয়ার ছিলেন। সেই হিসেবে যাত্রী সংখ্যা গিয়ে দাঁড়ালো ৩৫ জনে।