রমজানের তীব্র যানজট ফুটপাতে দোকান নিষিদ্ধ

প্রতিবছর রমজান মাসের শুরু থেকে রাজধানীতে যানজট সংকট প্রকট হয়ে ওঠে। নগরীর অনেক ব্যস্ত সড়কই হয়ে যায় নিশ্চল। রমজানের এই তীব্র যানজটের অন্যতম কারণ ফুটপাতের দোকান। এবার পুরো রমজান মাসে রাজধানীর ফুটপাতে যে কোনো ধরনের ইফতারি বিক্রির দোকান অথবা মৌসুমি ফল বা পণ্যসামগ্রী বিক্রির দোকান বসানো নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)।

সোমবার (৬মে) দুপুরে নগর ভবনে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সঙ্গে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকনের এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান ডিএমপি কমিশনার আসাদুজ্জামান মিয়া।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, ফুটপাতের উপরে কোনো ধরনের ইফতারির দোকান বা মৌসুমি ফলের দোকান দিয়ে জনগণের চলাচলে বাধা সৃষ্টি করবেন না।

তিনি জানান,পবিত্র রমজানে যানজট সহনীয় পর্যায়ে রাখতে বাড়তি কমিউনিটি ট্রাফিক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এর মধ্যেই রাজধানীর বিপণি বিতানগুলোতে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে বলে জানান ডিএমপি কমিশনার। এছাড়া বাস টার্মিনাল, রেল স্টেশন ও লঞ্চ ঘাটসহ সব স্তরে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সিসি টিভি স্থাপনসহ অন্যান্য সিকিউরিটি ডিভাইস স্থাপন করা হয়েছে বলে জানান ডিএমপি কমিশনার।

এসময় ঢাকা দক্ষিণ সিটি মেয়র সাঈদ খোকন বলেন, এরই মধ্যে ফুটপাতগুলোকে অবৈধ দখলমুক্ত করা হয়েছে। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সুপারিশে হকারদের জন্য ১১টি হলিডে মার্কেট করা হয়েছে। যেখানে হকাররা শুক্রবার ও শনিবার ব্যবসা করতে পারবেন। বিকল্প ব্যবস্থা থাকায় এবারের রমজানে তাদের ফুটপাতে দোকান সাজিয়ে বসতে দেওয়া হবে না। তবে রাজধানীর মতিঝিলে বিকল্প দুএকটি রাস্তায় নির্দিষ্ট সময়ে সাময়িকভাবে হকার বসার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। তবে নির্দিষ্ট এলাকা ছাড়া ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের অন্য কোনো এলাকায় হকাররা বসতে পারবে না বলে জানান মেয়র সাঈদ খোকন। ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন একই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।