ছাদে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে প্রাণ গেল একই পরিবারের মা-মেয়ে ও নাতনির

বাড়ির ছাদে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে প্রাণ গেল একই পরিবারের মা-মেয়ে ও নাতনির। কাপড় শুকাতে গিয়ে ঘটে এমন মর্মান্তিক ঘটনা। শুক্রবার (৩ মে) দুপুরের দিকে রংপুর নগরীর লালবাগ কলেজ রোডের চারতলা মোড় সংলগ্ন বনানীপাড়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বাড়ির মালিক সৈয়দ আলীকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহতরা হলেন- বাড়ির ভাড়াটিয়া নগরীর হাজিরহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা তানিয়া ওয়াফসি (৩০), মেয়ে তাজমিয়া (৮) ও মা তাজমহল বেগম (৬১)।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ওই এলাকার সৈয়দ আলীর দুই তলা ভবনের দ্বিতীয় তলায় ভাড়া থাকতেন তানিয়া। তার স্বামী রুবেল হোসেন ঢাকায় একটি ব্যাংকে চাকরি করেন। সাপ্তাহিক ছুটিতে তিনি শুক্রবার রংপুরে অবস্থান করছিলেন।

বেলা দেড়টার দিকে বাড়ির ছাদে কাপড় শুকাতে গিয়ে প্রথমে বিদ্যুতের তারে স্পৃষ্ট হন তানিয়া ও তার মেয়ে তাজমিয়া। এ সময় তাদের চিৎকারে তাজমহল বেগম ছুটে গেলে তিনিও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন।

খবর পেয়ে রংপুর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থল থেকে তাদের উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ওই তিনজনকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কোতোয়ালি জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার জমির উদ্দিন জানান, এ ঘটনায় বাড়ির মালিক সৈয়দ আলীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।