হিন্দিতে উত্তর দিতে না পারায় বাংলাদেশি নারীকে বিএসএফের নির্যাতন

ভারতের ঘোজাডাঙ্গা ই‌মি‌গ্রেশনে হি‌ন্দিতে করা প্রশ্নের উত্তর দিতে না পারায় ফুলসুরাত বেগম না‌মে এক বাংলাদেশিকে আটকে নির্যাতন চালিয়েছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ)।

বুধবার (১ মে) সকালে সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দরের বিপরীতে ভারতের ঘোজাডাঙ্গা ই‌মি‌গ্রেশন সংলগ্ন বিএসএফ চেকপোস্টে এ ঘটনা ঘটে। আহত পাসপোর্ট যাত্রী ফুলসুরাত বেগম সাতক্ষীরা সদর উপজেলার পরানদহা গ্রামের মোহাম্মদ আকবর আলীর স্ত্রী।

ফুলসুরাত বেগম বলেন, চিকিৎসার জন্য ২৮ এপ্রিল ভারতে গিয়েছিলাম। সকালে ভারত থেকে ফেরার পথে ঘোজাডাঙ্গা বন্দরে পৌঁছালে বিএসএফ সদস্যরা আমার ব্যাগ তল্লাশি করে। এসময় তারা হিন্দিতে বিভিন্ন প্রশ্ন করলে আমি হিন্দি বুঝতে ও বলতে না পারায় উত্তর দিতে পারিনি। পরে তারা আমাকে বিএসএফ ক্যাম্পে নিয়ে কয়েক ঘণ্টা আটকে রেখে নির্যাতন করে। এরপর বিজিবি ও ভারতীয় ইমিগ্রেশন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপে আমি সেখান থেকে মুক্তি পাই।

তিনি আরও বলেন, এ ঘটনার পর ভারতীয় কর্তৃপক্ষকে লিখিত অভিযোগ করেছি।

এ বিষয়ে ভোমরা বিজিবি ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার মুজিবর রহমান জানান, বিষয়টি জানার সঙ্গে সঙ্গে আমরা বিএসএফ কর্তৃপক্ষকে চিঠি পাঠাই। ইমিগ্রেশন কার্যক্রম শেষে তাকে বাংলাদেশ নিয়ে আসা হয়েছে। এ ঘটনায় ভুল শিকার করে বিএসএফ দুঃখ প্রকাশ করেছে।