‘গুলিস্তানে ককটেল হামলায় আইএসের দায় স্বীকার ষড়যন্ত্রের অংশ’

বুধবার রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে লায়ন জেলা ৩১৫ বি/১ বাংলাদেশের ২৩তম বার্ষিক সম্মেলন শেষে গণমাধ্যম কর্মীদের প্রশ্নের জবাবে গুলিস্তানে ককটেল হামলায় দুই পুলিশ সদস্য আহত হওয়ার ঘটনায় ইসলামিক স্টেটের (আইএস)দায় স্বীকারকে ষড়যন্ত্রের অংশ বলে অভিহিত করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কোনো ঘটনা ঘটলেই আইএস দায় স্বীকার করছে এবং যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক প্রতিষ্ঠান সাইট ইন্টেলিজেন্স বিবৃতি দিচ্ছে, এটি ষড়যন্ত্র।

তিনি বলেন, অতীতের ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে আমরা বলতে পারি, কোনো ঘটনা ঘটামাত্র মাত্র পাঁচ মিনিটের মধ্যে আমেরিকাভিত্তিক সাইট ইন্টেলিজেন্স নামের ওয়েবসাইট থেকে আইএস দায় শিকার করে নেয়। এটি একটি ষড়যন্ত্র। যে যতোই ষড়যন্ত্র করুক বাংলাদেশের মাটিতে জঙ্গিবাদের স্থান নেই। বাংলাদেশের মানুষ কখনো সন্ত্রাসকে পছন্দ করে না, কোনোদিন জঙ্গিদের আশ্রয় প্রশ্রয় দেয় না।

প্রসঙ্গত, গত সোমবার রাতে গুলিস্তানে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউ এলাকায় দুই পুলিশের ওপর হামলা হয়েছে। এ হামলায় দুই ট্রাফিক পুলিশ সদস্যসহ ৩ জন আহত হন। আহতরা হলেন ট্রাফিক কনস্টেবল নজরুল ইসলাম ও লিটন এবং কমিউনিটি পুলিশ মো. আশিক। তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এ ঘটনার দায় স্বীকার করে বিবৃতি দিয়েছে আইএস।

এই বোমা হামলার ঘটনায় জড়িতদের শনাক্ত করা গেছে কিনা জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমাদের আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী যথেষ্ট দক্ষ। তারা দ্রুত সময়ের মধ্যে জড়িতদের আইনের আওতায় নিয়ে আসবেন। সব কিছু দ্রুত উদঘাটন হয়ে যাবে।সবকিছু আপনারা জানতে পারবেন।

জঙ্গিরা জামিনে মুক্ত হয়ে আবার অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে পারে কিনা জানতে চাইলে বলেন, এদেশের আইন ও বিচার বিভাগ স্বাধীন। বিচার বিভাগ কাকে জামিন দিলো, কাকে শাস্তি দিলো সেটা আমাদের দেখার বিষয় নয়। আমাদের দেখার বিষয় হলো যে অপরাধ করেছে তাকে আমরা বিচারের মুখোমুখি করে দিতে পেরেছি কিনা। আমাদের নিরাপত্তা বাহিনী সেটা করছে।

এসময় ফেনীর মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত হত্যার বিচার প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, নুসরাত হত্যাকাণ্ডে যে-ই জড়িত থাকুক কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। এ ঘটনায় পুলিশ সদস্যদের ভূমিকা নিয়ে পুলিশ সদর দফতরে একটি তদন্ত প্রতিবেদন জমা পড়েছে। প্রতিবেদনের একটি কপি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়েও পাঠানো হবে। সে অনুযায়ী জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। জড়িত কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।