বিয়ে করতে রাজি না হওয়ায় প্রেমিকের বিরুদ্ধে ধর্ষনের মামলা

বান্দরবানে প্রেমিকাকে বিয়ে করতে রাজি না হওয়া প্রেমিকের বিরুদ্ধে ধর্ষনের মামলা দায়ের করেছে এত প্রেমিকা। বুধবার রাতে বান্দরবানের লামা উপজেলার ফাসিয়াখালি ইউনিয়নের অংহ্লারি মার্মা পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, অংহ্লারি মার্মা পাড়ার স্বামী পরিত্যাক্তা জুলেখা বেগমের (২২) সাথে নুর মোহাম্মদের দীর্ঘ দিনের প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। নুর মোহাম্মদ তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শারীরিক সম্পর্ক করেন। গত কয়েকদিন আগে জুলেখা নুর মোহাম্মদকে বিয়ের কথা বললে সে তাকে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানালে জুলেখা বেগম তার প্রেমিকের বিরুদ্ধে লামা থানায় ধর্ষনের অভিযোগ দায়ের করে। এর আগে ১৬ এপ্রিল জুলেখা বেগম তার মামা নুর হোসেনের সঙ্গে বসে মদ পান করে মাতলামি করলে এলাকায় জানাজানি হয় নুর হোসেন ও তার সঙ্গীরা জুলেখা বেগমকে মদ পান করিয়ে ধর্ষন করে। পরে পুলিশ গতকাল (১৭ এপ্রিল) ঘটনা তদন্তের জন্য নুর হোসেন ও জুলেখা বেগমকে থানায় আনলে বেরিয়ে আসে আসল ঘটনা।

জুলেখা বেগম জানায়, নুর মোহাম্মদ আমাকে বিয়ের কথা বলে দীর্ঘদিন ধরে আমার সাথে শারীরিক সম্পর্ক করে আসছে। পরে যখন আমাকে বিয়ে করার কথা বলি সে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানালে মনের দুখে আমি আমার মামা নুর হোসেনের সাথে বসে মদ পান করে ভারসাম্য হারিয়ে ফেললে ঐ অবস্থায় এলাকার মানুষ বিচারের নামে আমার কাছ থেকে সাদা কাগজে টিপ সই নেয় এবং নুর হোসেনসহ কয়েকজন মিলে আমাকে ধর্ষন করেছে বলে মিথ্যা ঘটনা সাজায়। কিন্তু সেটা সত্য নয়। আসল কথা হচ্ছে নুর মোহাম্মদ আমাকে বিয়ে করবে বলে শারীরিক সম্পর্ক করে পরে আমি বিয়ের কথা বললে সে অস্বীকৃতি জানায়। তাই মিথ্যা বলে আমাকে ব্যবহার করায় আমি নুর মোহাম্মদের বিচার চাই তার বিরুদ্ধে ধর্ষনের মামলা দায়ের করেছি।

এ বিষয়ে লামা থানার অফিসার্স ইনচার্জ অপেলা রাজু নাহা বলেন মহিলাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শারীরিক সম্পর্ক করে এখন তাকে বিয়ে করতে অস্বীকার করায় নুর মোহাম্মদের বিরুদ্ধে ধর্ষনের অভিযোগ করেছেন তিনি। আসামী নুর মোহাম্মদ পলাতক রয়েছে। আমরা তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছি।

সোহেল কান্তি নাথ, বান্দরবান প্রতিনিধি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here