তিন নারী মানবাধিকার কর্মীকে মুক্তি দিয়েছে সৌদি আরব

সাময়িকভাবে তিন নারী মানবাধিকার কর্মীকে মুক্তি দিয়েছে সৌদি আরব। তারা প্রায় এক বছর ধরে পুলিশ হেফাজতে ছিলেন। রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, আদালতের এক শুনানির পর তাদের মুক্তি দেয়া হয়েছে। ওই নারীদের জিজ্ঞাসাবাদের সময় নির্যাতন এবং যৌন হেনস্তা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

তবে বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম এসপিএর খবরে তিন নারী মানবাধিকার কর্মীর মুক্তির বিষয়টি জানানো হলেও তাদের পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি। তবে বেশ কিছু প্রতিবেদনে ওই নারীদের পরিচয় জানানো হয়েছে। এরা হলেন ব্লগার এমান আল নাফজান এবং কিং সৌদ বিশ্ববিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক আজিজা আল ইউসেফ এবং একাডেমিক রোকেয়া আল মোহারেব।

বুধবার দ্বিতীয় শুনানির পরেই তাদের মুক্তি দেয়া হয়। তবে এই শুনানিতে বিদেশি সাংবাদিক এবং কূটনীতিদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা ছিল। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম এবং মানবাধিকার সংগঠনগুলোর সঙ্গে সম্পৃক্ততার অভিযোগে ওই নারীদের বিচারের মুখোমুখি হতে হয়েছে।

আদালতের শুনানিতে মুক্তি চেয়ে ওই নারীরা আবেদন জানিয়েছিলেন। তাদের ওই আবেদনের ওপর ভিত্তি করেই ওই নারীদের সাময়িকভাবে মুক্ত দেয়া হয়েছে বলে রিয়াদের ফৌজদারি আদালত উল্লেখ করেছে বলে এসপিএর এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

মুক্তি পাওয়া এক নারীর এক আত্মীয় এএফপিকে জানান, আগামী ৩ এপ্রিল আদালতের শুনানি আবারও শুরু হলে ওই নারীদের আদালতে উপস্থিত হতে হবে। গত বছরের মে থেকে ১১ জনের বেশি মানবাধিকার কর্মীকে আটক করা হয়েছে।