সতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষে ভোট চাইতে গিয়ে নাজেহাল সংসদ উপনেতার এপিএস!

ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী কাজী শাহ জামান বাবুলের পক্ষে ভোট চাইতে গিয়ে জনতার রোষানলে পড়ে নাজেহাল হয়েছেন জাতীয় সংসদের উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর সহকারি একান্ত সচিব (এপিএস) শফিউদ্দিন চৌধুরী। মঙ্গলবার (১২ মার্চ) বিকেল পৌনে ৫টার দিকে নগরকান্দা উপজেলার রামনগর ইউনিয়নের কুঞ্জনগর বাজারে এ ঘটনা ঘটে বলে একাধিক সূত্রে জানা যায়।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, মঙ্গলবার বিকেল সোয়া ৪টার দিকে এপিএস শফিউদ্দিন রামনগর ইউনিয়নের কুঞ্জনগর বাজারে আসেন। তিনি প্রথমে ওই বাজারে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী কাজী শাহ জামান বাবুলের (আনারস) কয়েকজন সমর্থককে নিয়ে সভা করেন। বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে ৫০/৬০ জন বিক্ষুব্ধ জনতা এপিএস শফিউদ্দিনকে ধাওয়া দেয়। ধাওয়া খেয়ে এপিএস কুঞ্জনগর বাজার জামে মসজিদের মাঠে আশ্রয় নেয়। ওই সময় আসরের নামাজ শেষ করে মুসল্লিরা বের হচ্ছিলেন। তারা শফিউদ্দিনকে জনতার রোষানল থেকে ঠেকিয়ে গাড়ির কাছে পৌঁছে দেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়,ওই সময় বিক্ষুব্ধ জনতা শফিউদ্দিনের উপর বারবার চড়াও হওয়ার চেষ্টা করেন। কিল ঘুষি মারেন। এক পর্যায়ে জনতা শফিউদ্দিনের গাড়ির পাঁশের দিকের একটি কাচ ভেঙ্গে ফেলে। পরে দ্রুত শফিউদ্দিন ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।

এ ব্যাপারে শফিউদ্দিন সাংবাদিকদের জানান, তিনি কুঞ্জনগর বাজারে গিয়েছিলেন। সেখানে গিয়ে তিনি সাত/আটজন লোকের সাথে কথা বলছিলেন। এসময় কিছু লোক হট্রগোল সৃষ্টি করলে তিনি ওই জায়গা থেকে চলে আসেন।

নগরকান্দা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মিরাজ হোসেন বলেন, কুঞ্জনগর বাজারে একটি সমস্যার কথা শুনে ওসি সাহেব ওখানে গিয়েছেন।

প্রসঙ্গত নগরকান্দা উপজেলাপরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আ.লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন জেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি মনিরুজ্জামান সরদার। কিন্তু সাজেদা চৌধুরীর রাজনৈতিক প্রতিনিধি কনিষ্টপুত্র শাহদাব আকবর চৌধুরী লাবু স্বতন্ত্র প্রার্থী কাজী শাহ জামানকে সমর্থন দেওয়ায় সেখানে আওয়ামী নেতা কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে বলে স্থানীয়রা সাংবাদিকদের জানায়।

হারুন-অর-রশীদ, ফরিদপুর প্রতিনিধি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here