কুয়েত মৈত্রী হল থেকে একবস্তা সিলমারা ব্যালট পেপার উদ্ধার

সোমবার সকাল ৮টা থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হয়। তবে স্বচ্ছ ব্যালট বাক্স দেখানোর দাবিতে ভোটগ্রহণ শুরু করতে দেয়নি হলের সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

বাংলাদেশ-কুয়েত মৈত্রী হল থেকে ছাত্রলীগ প্যানেলের প্রার্থীদের পক্ষে সিল মারা একবস্তা ব্যালট পেপার উদ্ধার হওয়ার পর বাংলাদেশ কুয়েত মৈত্রী হলের ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে। এ নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেছেন শিক্ষার্থীরা। এ ঘটনায় তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর গোলাম রব্বানীকে অবরুদ্ধ করে রেখেছে।

পরে কুয়েত মৈত্রী হলের রিডিং রুমের পাশের একটি কক্ষ থেকে একবস্তা সিলমারা ব্যালট পেপার উদ্ধার হওয়ার পর বিক্ষোভ শুরু করে শিক্ষার্থীরা।

ডাকসু নির্বাচনের প্রধান রিটার্নিং কর্মকর্তা অধ্যাপক ড. এসএম মাহফুজুর রহমান জানান, বিষয়টি আমরা পর্যবেক্ষণ করছি। আপাতত ভোট স্থগিত রাখা হয়েছে।

স্বতন্ত্র ভিপি প্রার্থী নুরুন্নাহার পলি অভিযোগ করেন, একটা হলে এক বস্তা ব্যালট পেপার পাওয়া যায়…ভোটের আগেই যেখানে কি না আগে থেকে সিল মারা হয়েছে। এ বিষয়টা আমরা প্রক্টরকে জানিয়েছি। হল প্রভোস্টকে জানিয়েছি… তারা ব্যবস্থা নেয়নি। যখন আমরা ব্যালটসহ মিডিয়ার সামনে উপস্থাপন করেছি.. তখন তারা ভোট স্থগিত করেছে। ভোট স্থগিত করা কী, তারা ভোট শুরুই করতে পারেনি।

হল প্রশাসনের যোগসাজসে ছাত্রলীগ প্যানেল এ কাজ করেছে বলেও অভিযোগ তার।