‘মাকে না বলে টাকা নিয়ে চকলেট কিনেছি, তাই মা বকা দিয়েছে’

মা বাবা উত্তরা পূর্ব থানায় এসে আর্তনাদ করে বলে তাদের স্কুল পড়ুয়া দুটি সন্তান হারিয়ে গেছে। কর্তব্যরত পুলিশ কর্মকর্তা কারো বিরুদ্ধে অভিযোগ, কারো সাথে শত্রুতা বা অন্য কোন কারণ আছে কিনা জানতে চাইলে বাবা-মা সুনির্দিষ্ট কোন কারন বলতে পারেন নাই।

ডিউটি অফিসার বাচ্চা দুটিকে কোন বকা ঝকা করেছিলেন কি না বাবা-মার কাছ থেকে জানতে চাইলে বাবা মা বলে তারা কোন ধরনের বকাঝকা করেন নাই। তারা জিডি করলেন এবং পুলিশের সহযোগিতা চাইলেন এবং বাচ্চা দুটিকে যেকোনো মূল্যে উদ্ধার করে দিতে বললন। পুলিশ তাৎক্ষণিক কন্ট্রোল রুমের মাধ্যমে সকল মোবাইল টিম ও চেকপোষ্টকে বিস্তারিত জানিয়ে বাচ্চা দুটির সন্ধান করতে বলল। অনেক খোঁজাখুঁজির পরে বাচ্চা দুটিকে পাওয়া গেল একটি মসজিদে ঘুমন্ত অবস্থায়।

ঘুম থেকে জাগিয়ে তোলা হলো এবং জিজ্ঞেস করা হলো “তোমরা বাসা থেকে কেন পালিয়ে আসলে?” বাচ্চা দুটি উত্তরে বলে” মাকে না বলে টাকা নিয়ে চকলেট কিনেছি ; তাই মা বকা দিয়েছে আর মা প্রায় সময় পড়াশোনা নিয়ে খুব বকাঝকা করে তাই বাসা থেকে পালিয়ে এসেছি”।

বাচ্চারা এখন এতটাই সেনসিটিভ হয়ে গেছে যে তাদেরকে বাবা-মা কোন বকাও দিতে পারবে না। আর বাবা-মা যদি থানায় এসে যদি প্রকৃত সত্য ঘটনাটা খুলে বলতো তাহলে আমাদের পুলিশের এত কষ্ট হতো না। কারণ পুলিশের পজেটিভ নেগেটিভ অনেকগুলো বিষয় মাথায় রেখেই কাজ করতে হয়।প্রকৃতপক্ষে ডাক্তার ও পুলিশের কাছে কোন কথা গোপন রাখতে নেই। অবশেষে বাবা মা ও বাচ্চা দুটিকে কাউন্সেলিং করে পিতা মাতার হাতে হস্তান্তর করা হলো।

মোঃ মিজানুর রহমান এডিসি, এয়ারপোর্ট জোন ডিএমপি, ঢাকা।

তানজীন মাহমুদ, নিজস্ব প্রতিনিধি