‘আল্লাহ আমার ভাইকে নিয়ে গেলো, এখন আমার মা-বোনের কি হবে’

চকবাজারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় নিহত নয়নের মা কামরুন নাহার। আজ সকাল ৯টা পর্যন্ত জানতেন না যে, তার ছেলে আগুনে পুড়ে মারা গেছে। সন্তান শোকে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালের সামনে কাঁদছিলেন তিনি।

এ সময় তার সাথে কথা হলে কান্নাজড়িত কণ্ঠে তিনি বলেন, রাতে বাসায় চাল নিয়ে আসার কথা ছিল। আমার ছেলে আর চাল নিয়ে আসলো না।

সংসারের এক মাত্র ৫ ভাই বোনের মধ্যে ৩ নম্বর নয়ন সংসারের একমাত্র কর্মক্ষম ব্যক্তি। সে চক বাজারের একটি কসমেটিক্সের দোকানে কাজ করত। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার আগে সে ওই এলাকাতেই ছিল।

নয়নের ছোট বোন জানান, ভাইয়ার বন্ধু মিজানের মাধ্যমে আমরা জানতে পারি যে, ভাইয়া চক বাজারের যেখানে কাজ করত সেখানে আগুন লেগে ভাইয়া মারা গেছে। হাসপাতালে এসে ভাইয়ার গায়ের গেঞ্জি ও তার হাতের ব্যাচ দেখে আমরা ভাইয়ার লাশ সনাক্ত করতে পেড়েছি।

নয়নের বড়বোন বলেন, বাবাতো অনেক আগেই আমাদের ছেড়ে অন্য যায়গায় চলে গেছে। আল্লাহ আমার ভাইকেও নিয়ে গেলো এখন আমার মা ও ছোট বোনের কি হবে।

এ সময় প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষন করে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী হয় আমার ভাইকে ফিরিয়ে দিক না হলে আমার ছোট বোন ও মায়ের দায়িত্ব নিক।