সোয়াইন ফ্লু ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ভারতে ২২৬ জনের মৃত্যু

ভারতে প্রাণঘাতী সোয়াইন ফ্লু ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত অন্তত ২২৬ জন মারা গেছে। এর মধ্যে রাজস্থানের পরিস্থিতি সবচেয়ে শোচনীয়। দেশটির স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় এ তথ্য জানিয়েছে। এ ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার দিক দিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে গুজরাট। এই রাজ্যে অন্তত ৪৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর পাঞ্জাবে মারা গেছেন ৩০ জন।

ভারতীয় গণমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশটির ন্যাশনাল সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোলের (এনসিডিসি) প্রতিবেদন অনুযায়ী, সোয়াইন ফ্লু ভাইরাসের কারণে সবচেয়ে ভয়াবহ পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে ভারতের রাজস্থানে। এই রোগে আক্রান্ত হয়ে এ রাজ্যে এখন পর্যন্ত অন্তত ৮৫ জন মারা গেছেন। এ ছাড়া আরও দুই হাজার ২৬৩ জনের শরীরে এ ভাইরাস পাওয়া গেছে।

সোমবার শুধু রাজধানী দিল্লিতেই সোয়াইন ফ্লু আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৮৯৫। তার মধ্যে ৭১২ জন সাবালক এবং ১৮৩টি শিশু। মঙ্গলবার নতুন করে আরও ১০৪ জনের আক্রান্তের খবর পাওয়া যায়, যার মধ্যে ২০ জনই শিশু।

এরই মধ্যে, সোয়াইন ফ্লু মোকাবেলার পদক্ষেপ নিয়ে পর্যালোচনা করেছে ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের সচিব প্রীতি সুদানের নেতৃত্বে এ পর্যালোচনা বৈঠক হয়। রাজস্থানে গণস্বাস্থ্য সংক্রান্ত একটি টিম পাঠানোর কথা জানিয়েছে মন্ত্রণালয়।

এছাড়া, গুজরাট এবং পাঞ্জাবেও টিম পাঠানো হয়েছে। সোয়াইন ফ্লু মোকাবেলায় রাজ্যগুলোকে সহায়তা করার জন্য এ সব টিম পাঠানো হয়।

এর আগে ২০১৫ সালে ভারতে ৩৩ হাজার মানুষ সোয়াইন ফ্লুতে আক্রান্ত হয়েছিল। এদের মধ্যে এক হাজার ৯৯৪ জনের মৃত্যু হয়।