বান্দরবান সীমান্তে জিরো লাইনের মিয়ানমার শরণার্থীর ভীড়

বান্দরবানের রুমা উপজেলার প্রাংশা ইউনিয়নের দুর্গম চৈক্ষ্যং সীমান্তের ৭২ নাম্বার পিলারের নিকটবর্তী জিরো লাইনের কাছে মিয়ানমারের চীন প্রদেশের প্রায় দুই শতাধিক শরণার্থী অবস্থান করছে। তারা যে কোন সময় বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করতে পারে বলে ধারনা করছেন স্থানীয়রা।

জানা গেছে মিয়ানমারের চীন রাজ্যের প্লাতোয়া জেলায় সেখানকার বিচ্ছিন্নতাবাদী আরাকান আর্মির সাথে বার্মার সেনাবাহিনীর দফায় দফায় ব্যাপক সংঘর্ষ চলছে। সংঘর্ষে হতাহতের ঘটনা এড়াতে এসব শরণার্থী বাংলাদেশ সীমান্তে অনুপ্রবেশের জন্য রুমা উপজেলার সীমান্তের জিরো লাইনে জড়ো হয়েছে। এদিকে শরনার্থীরা যাতে বাংলাদেশের সীমান্তে প্রবেশ করতে না পারে সে ব্যাপারে বিজিবি কঠোর অবস্থানে রয়েছে বলে জানান প্রশাসন।

বান্দরবান জেলা প্রশাসক মোঃ দাউদুল ইসলাম জানান, মিয়ানমারের চীন প্রদেশে সংর্ঘষ চলার কারণে বেশ কিছু শরণার্থী মিয়ানমারের জিরোলাইনে অবস্থান করেছে। তিনি জানান সেখানে মিয়ানমারের খুমি ১২ পরিবারের ৪৮ জন এবং রাখাইন ১৬ পরিবারের ৭২ জন ১২০ শরণার্থী আশ্রয় নিয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। তারা যাতে এ দেশে অনুপ্রবেশ করতে না পারে সে জন্য শর্তক রয়েছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।

 

সোহেল কান্তি নাথ, বান্দরবান প্রতিনিধি