ফরিদপুরে সংখ্যালঘুর বাড়ি দখলের হুঁমকি, প্রতিকার চেয়ে সংবাদ সম্মেলন!

ফরিদপুরের শোভারামপুরে স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহলের বিরুদ্ধে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের বাড়ি দখলের হুঁমকির অভিযোগে উঠেছে। প্রতিকার চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভুক্তভোগী পরিবার। শুক্রবার (২৫ জানুয়ারী) দুপুরে ফরিদপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ তথ্য জানান ভুক্তভোগী নিরোদ বিশ্বাস।

ফরিদপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক হাচানুজ্জামানের সভাপতিত্বে ভুক্তভোগী নিরোদ বিশ্বাসের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, নিরোদ বিশ্বাসের ছেলে দিলিপ বিশ্বাস। এ সময় সংবাদ সম্মেলনে নিরোধ বিশ্বাসের ছেলে সুনিল, দিপক বিশ্বাস, তার চাচাত ভাই অনিল কুমার বিশ্বাস ও অখিল কুমার উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে নিরোধ বিশ্বাস জানান, আমি অতিশয় একজন হিন্দু সম্প্রদায়ের লোক। আমাদের ব্যাক্তিগত প্রয়োজন মেটাতে আমি ও আমার চাচাতো ভাইয়েরা স্বত্ব দখলীয় পৈত্রিক সুত্রে প্রাপ্ত সম্পত্তির ( কোতয়ালী থানাধীন শোভারামপুর মৌজার এস এ খতিয়ান -১৩২৪ ও ১৩২৪, দাগ নং- ২৬১৫) মধ্যে ৩১ শতাংশ জমি উত্তর শোভারামপুরের মৃত আয়নাল শেখের পুত্র মালেক শেখের কাছে গত ১৭ জানুয়ায়ী ২০১২ ইং তারিখে রেজিস্ট্রি সম্পাদন করে দেই। জমি বিক্রয়ের পর বিবাদীগণ জমির দখল বুঝিয়া নেয়। এমনকি বিক্রয়কৃত জমিতে ভোগদখলে আছে। পরবর্তীতে ভুলক্রমে উক্ত জমি বিএস রেকর্ডে অন্যের নামে হয়। উক্ত জমিতে আমাদের আরো অংশ থাকায় রেকর্ড সংশোধনের জন্য বিজ্ঞ ল্যান্ড সার্ভে ট্রাইবুনালে মামলা করি। মামলা চলমান রয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা যে অংশটি হাজি আব্দুল মালেক শেখের কাছে বিক্রি করেছি সেই জমি বিক্রির কয়েক বছর পর অন্যের নামে ভুল বসত রেকর্ড হওয়ায় জমির ক্রেতা তার পালিত লোক কালাম ও জহুরুল প্রামানিকের মাধ্যমে আমার বসত বাড়ি দখলের হুঁমকি দিয়ে আসছে। এমনকি তাহার নামে আমাদের বসত বাড়ি লিখে না দিলে আমার পরিবারের উপর যে কোন প্রকার ক্ষতিসাধন করতে পারে বলে আশংখা করছি।

নিরোদ বিশ্বাস সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, জমি বিক্রি করার পর তার দায় ভার আমার থাকার কথা নয়। মালেক শেখ প্রভাবশালী হওয়ায় আমার উপর মিথ্যে মামলা ও হুঁমকি দিয়ে জবরদখল নেয়ার পায়তারা চালাচ্ছে। বিবাদী মালেক শেখ প্রভাবশালী হওয়ায় বর্তমানে আমি আমার পরিবারের জীবন নিয়ে নিরাপত্তা হীনতায় ভুগতেছি। এমতাবস্থায় ন্যায় বিচারের আশায় আপনাদের শরনাপন্ন হইলাম। এ ব্যাপারে আপনাদের মাধ্যমে সকলের সহযোগীতা কামনা করছি।

এব্যাপারে বিবাদী মালেক শেখ বলেন, আমি তার জমি কেন দখল করতে যাবো। আমি তার কাছে থেকে জমি কিনেছি। মালেক শেখ অভিযোগ করে বলেন, নিরোদ বিশ্বাস ভূয়া একটা মাঠপর্চা বানিয়ে জমি বিক্রি করেছেন আমার কাছে। এব্যাপারে তার বিরুদ্ধে কোর্টে একটি মামলাও করেছি। এছাড়া বাড়ি দখল ও হুঁমকির যে অভিযোগ করেছে তা ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যপ্রনোদিত। আমাকে হেয় করার জন্য এ অভিযোগ করা হয়েছে।

হারুন-অর-রশীদ, ফরিদপুর প্রতিনিধি