‘নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করার পরিণতি অচিরেই তাদের ভোগ করতে হবে’

ডিএনসিসির মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যুর পর উপ-নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা হলেও হাইকোর্টের রায়ে তা স্থগিত হয়ে যায়। আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র পদে উপ-নির্বাচনের ভোটগ্রহণের দিন ধার্য করে তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।

এর আগে পাঁচজন দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী থাকলেও বিএনপির পক্ষ থেকে তাবিথ আউয়ালকে মনোনয়ন দেয়া হয়। তবে এবারের মেয়র নির্বাচন নিয়ে বিএনপিতে আগ্রহ দেখা যাচ্ছে না। মেয়র পদে উপ নির্বাচন এবং উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি। বৃহস্পতিবার রাতে দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়েছে। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ কথা জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে আগামীতে সরকারের অধীনে বিএনপির সকল নির্বাচন বর্জন প্রসঙ্গে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, নির্বাচনে আসা না আসা তাদের সিদ্ধান্তের ব্যাপার। কিন্তু নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করার পরিণতি অচিরেই তাদের ভোগ করতে হবে। নির্বাচন বয়কটের মধ্য দিয়ে তারা আরও সংকুচিত হওয়ার মতো আত্মঘাতী পথ বেছে নিয়েছে। এতে বিএনপিও মুসলিম লীগের পরিণতির দিকে যাচ্ছে। তাই বিএনপির নির্বাচন বয়কটের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করা উচিত।

শুক্রবার সকালে গাজীপুরের কোনাবাড়িতে জয়দেবপুর-এলেঙ্গা ফোর লেন ও উড়াল সেতুর উন্নয়ন কাজ পরিদর্শন এসে ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, জাতীয় নির্বাচনে মহাপরাজয়ের পর বিএনপির মহাবিপর্যয়ে পড়ার মতো। তারা আসলে রাজনীতির মহাদুর্যোগে পতিত হয়েছে। পথিক যেমন পথ হারিয়ে দিশাহীন হয়ে যায় বিএনপির অবস্থাও এখন তেমন।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, আগামী রোজার আগেই ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের কোনাবাড়ি ও চন্দ্রা ফ্লাইওভার এবং কালিয়াকৈরের লতিফপুর ও মির্জাপুরের ধেরুয়া ট্রেন ওভারব্রিজ চালু করে দেয়া হবে। এতে এই সড়কে আর কোন যানজট থাকবে না।

পরিদর্শনকালে মন্ত্রীর সাথে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সড়ক ও জনপথের ঢাকা বিভাগীয় তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী সবুজ উদ্দিন খান, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মো. আজাদ মিয়া, গাজীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আমীনুল ইসলাম, গাজীপুরের নির্বাহী প্রকৌশলী মুহাম্মদ সাইফউদ্দিন এবং সড়ক বিভাগ ও প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।