ভোরের আলোয় মিলিয়ে গেলেন সঙ্গীত জগতের নক্ষত্র আহমেদ ইমতিয়াজ

বীর মুক্তিযোদ্ধা, বরেণ্য গীতিকার, সুরকার ও প্রখ্যাত সংগীত পরিচালক আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মঙ্গলবার (২২ জানুয়ারি) ভোর ৪টার দিকে রাজধানীর আফতাব নগরের নিজ বাসায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৬৩ বছর। তার ছেলে সামির আহমেদ গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গেলো বছরের মাঝামাঝি তার হার্টে আটটি ব্লক ধরা পড়ে। পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার চিকিৎসার দায়িত্ব নেন। এরপর তার হার্টে দুটি রিং পরানো হয়। চিকিৎসা শেষে সুস্থ্য হয়ে বাসায় ফিরেন তিনি।

পরিবারের সদস্যরা জানান, ভোররাতে বুকের ব্যাথায় নিথর হয়ে পড়েন এই সংগীত পরিচালক। পরে সকাল সোয়া ছয়টায় তাকে রাজধানীর আয়েশা মেমোরিয়াল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকেরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। চিকিৎসকরা বলছেন ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে তার মৃত্যু হয়েছে।

আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল ১৯৫৭ সালের ১ জানুয়ারি জন্মগ্রহণ করেন। তিনি একাধারে গীতিকার, সুরকার এবং সঙ্গীত পরিচালক। সত্তরের দশকের শেষদিকে মেঘ বিজলি বাদল ছবিতে সঙ্গীত পরিচালনার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে সংগীত পরিচালনার কাজ শুরু করেন আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল। ১৯৭১ সালে মাত্র ১৫ বছর বয়সে তিনি বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। প্রচুর জনপ্রিয় গানেরও সুরকার তিনি। চলচ্চিত্রের সঙ্গীত পরিচালনা করে দুইবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন। রাষ্ট্রীয় সর্বোচ্চ সম্মান একুশে পদক, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার এবং রাষ্ট্রপতির পুরস্কারসহ অসংখ্য পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন সঙ্গীত জগতের এই নক্ষত্র।

গুনী এই সংগীত পরিচালকের মৃত্যুতে সঙ্গীত ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। প্রিয় এই তারকার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়ার সাথে সাথে তার বাসায় ছুটে এসেছেন বন্ধু-সহকর্মী, সুহৃদ, স্বজনরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here