মসজিদ ও মাদ্রাসার মোট ১২টি সিন্দুক ভেঙে টাকা চুরি

গত ২২ ডিসেম্বর রাজধানীর হাইকোর্ট মাজার, মসজিদ ও মাদ্রাসার মোট ১২টি সিন্দুক ভেঙে টাকা চুরি ঘটনা ঘটে। ঘটনাটির ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করেছে পুলিশ। যেখানে মুখে কালো কাপড় পরে এক ব্যক্তি সিন্দুক ভেঙে টাকা চুরি করতে দেখা গেছে। চুরির পর গেটের তালাও ভাঙে সে। এসময় সাদা শার্ট ও কালো প্যান্ট পরা এক ব্যক্তিকে চোরের সহযোগিতা করতে দেখা যায়।

মঙ্গলবার রাতে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া ও পাবলিক রিলেসন্স বিভাগ ভিডিওটি প্রকাশ করে চোর ও তার সহযোগিতা করা ব্যক্তিকে ধরিয়ে দেয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে।

এক প্রেস বার্তায় ডিএমপি জানায়, গত ২২ ডিসেম্বর ১১টা থেকে পরদিন একটার মধ্যে হাইকোর্ট-সুপ্রিম কোর্ট মাজার মসজিদের দানবাক্সের মোট ১২টি সিন্দুকের তালা ভেঙে মূল্যবান বৈদেশিক মুদ্রা, স্বর্ণ ও মোটা অংকের নগদ টাকা চুরির ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে মধ্যে হাইকোর্ট মাজারের আটটি, মসজিদের দুটি ও মাদ্রাসার দুটি সিন্দুক রয়েছে। এ ঘটনায় ২৩ ডিসেম্বর শাহবাগ থানায় একটি চুরির মামলা দায়ের করা হয়।

ঘটনাস্থলের সিসিটিভি ফুটেজ পর্যালোচনায় করে ভিডিওতে প্রদর্শিত জনৈক ব্যক্তিকে বর্ণিত চুরির ঘটনার সঙ্গে জড়িত বলে প্রতীয়মান হয়। ভিডিওচিত্রে প্রদর্শিত ব্যক্তি সম্পর্কে কেউ জ্ঞাত থাকলে নিম্নোক্ত ঠিকানায় যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

১। অফিসার ইনচার্জ শাহবাগ থানা- ০১৭১৩-৩৭৩১২৫

২। এসআই মো. মনছুর আহম্মেদ- ০১৭২১-৪৭১৪৬১

প্রসঙ্গত, ওই সিন্দুকটি বছরে একবার খোলা হয় এবং এতে টাকা ছাড়াও স্বর্ণালঙ্কার রাখা হয়। অন্যান্য সিন্দুকগুলোতে শুধু টাকা রাখা হয় এবং ১৫-২০ দিন পরপর খোলা হয়। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, সিন্দুকগুলো থেকে আনুমানিক ১২ লাখ টাকা নিয়ে গেছে চোরেরা।