মন্ত্রী পরিষদের শপথানুষ্ঠানে বদি ও তার স্ত্রী শাহিন আক্তার

কক্সবাজার-৪ আসনে শীর্ষ দুই রাজনৈতিক দলের মধ্যে নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়াই করে নৌকার জয় নিশ্চিত করেছেন আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির স্ত্রী শাহিন আক্তার চৌধুরী। সংসদ সদস্য হিসেবে আবদুর রহমান বদি ও তার স্ত্রী নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য শাহিন আক্তার নতুন মন্ত্রী পরিষদের শপথানুষ্ঠানে বঙ্গভবনে আমন্ত্রণ পেয়েছেন।

তাঁরা দুইজনই সোমবার বিকালে বঙ্গভবনে আয়োজিত নতুন সরকারের নতুন মন্ত্রী পরিষদের শপথানুষ্ঠানে যোগ দেন। রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ নতুন মন্ত্রীপরিষদ সদস্যদের আনুষ্ঠানিক ভাবে শপথ বাক্য পাঠ করান।

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ক্সবাজার-৪ উখিয়া-টেকনাফ আসনে ২০০৮ এবং ২০১৪ সালে আওয়ামী লীগ থেকে টানা দুই বার ক্ষমতায় আসা সংসদ সদস্য আব্দুর রহমান বদির বদলে নৌকার মাঝি হয়েছেন তারই সহধর্মীনী শাহীনা আক্তার চৌধুরী। মূলত উখিয়া-টেকনাফে এম পি বদির জনপ্রিয়তার বিকল্প না থাকায় বদির স্ত্রীকেই আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দেয়া হয়েছিল। পরোক্ষভাবে এম পি বদির জনপ্রিয়তার কারণেই পরিবারের সদস্যকে মনোনয়ন দিয়েছে আওয়ামী লীগ। আর সেই জনপ্রিয়তার জোরেই জনগণের ভোটে ও ভালবাসায় নৌকা মার্কা নিয়ে জোয় লাভ করেছেন শাহিন আক্তার।

দশম জাতীয় সংসদের নির্বাচিত সদস্য আবদুর রহমান বদি আগামি ২৭ জানুয়ারি পর্যন্ত সংসদ সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালনের ক্ষমতা রাখেন।

উখিয়া-টেকনাফের জনপ্রিয় সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদি জানান, স্বামী-স্ত্রী দু’জনই একসাথে বঙ্গভবনে আমন্ত্রণ পাওয়াটা আসলেই সৌভাগ্যের, তাও আবার দু’জনই এমপি হিসেবে।

এব্যাপারে নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য শাহীন আক্তার জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আমার স্বামী আবদুর রহমান বদিকে বিশ্বাস করে আমাকে মনোনয়ন দিয়েছিলেন। আমি সেই বিশ্বাস ও আস্থার প্রতিদান দেয়ার চেষ্টা করছি। আমার স্বামীও জননেত্রী শেখ হাসিনার বিশ্বাসের প্রতিদান দিয়ে আমাকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত করে এনেছেন।

তিনি বলেন, আমার স্বামীর আবদুর রহমান বদি ও আমি নিজে সংসদ সদস্য হিসেবে একসাথে শপথ অনুষ্ঠানে আসতে পেরে নিজেকে খুবই গর্বিত মনে করছি।

উল্লেখ্য, গত ৩০ ডিসেম্বর জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কক্সবাজার-০৪ আসনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হয়ে বিপুল ভোটে জয়লাভ করেন শাহীন আকতার চৌধুরী ওরফে শাহীন বদি।