শনিবার দেশে আনার সম্ভাবনা রয়েছে সৈয়দ আশরাফের মরদেহ

স্বাধীনতার মহান স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠ সহচর, মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক সৈয়দ নজরুল ইসলামের সুযোগ্য পুত্র বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এর প্রেসিডিয়াম সদস্য ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এর সাবেক সফল সাধারণ সম্পাদক শ্রদ্ধেয় জননেতা জনাব সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম এম পি এর মরদেহ শনিবার দেশে আনার জোর সম্ভাবনা রয়েছে।

ওইদিন (শনিবার) বিকালে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে তার মরদেহ দেশে এসে পৌঁছানোর কথা রয়েছে। থাইল্যান্ডে অবস্থানরত সৈয়দ আশরাফের ভাই মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ সাফায়েত ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম ফুসফুসের ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে থাইল্যান্ডের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টায় মারা যান। মৃত্যুকালে তিনি এক মেয়ে, ভাই-বোনসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন, গুণগ্রাহী ও শুভানুধ্যায়ী রেখে গেছেন। তার মৃত্যুতে দেশের রাজনৈতিক অঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

সৈয়দ আশরাফের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা, নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ।

ফুসফুসের ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে সৈয়দ আশরাফ থাইল্যান্ডের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। অসুস্থতার কারণে তিনি গত বছর ১৮ সেপ্টেম্বর সংসদ থেকে ছুটি নেন। দেশে না থেকেও সৈয়দ আশরাফ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কিশোরগঞ্জ-১ (সদর-হোসেনপুর) আসনে নৌকা প্রতীকে জয়ী হন।