জয় পরাজয়ে ভোটের এতো বেশি ব্যবধান গবেষণা করে দেখা উচিতঃ রিয়াজুল হক

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হওয়া একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থীদের জয় পরাজয়ে ভোটের এতো বেশি ব্যবধান গবেষণা করে দেখা উচিত বলে জানিয়েছেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক। আজ মঙ্গলবার জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের প্রধান কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

এবারের জাতীয় নির্বাচনে জয় পরাজয়ে ভোটের ব্যবধান অন্যান্য বারের তুলনায় অনেক বেশি। তাই জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক বিষয়টি গবেষণা করে দেখার প্রয়োজন আছে বলে মনে করেন। তিনি এই সম্পর্কে বলেন, ‘কারণ আমি বলতে পারব না, তবে এতো ভোটের ব্যবধান কেন হলো, এটা নিয়ে একটা গবেষণা হতে পারে। এটা গবেষণা করে দেখা উচিত।’ এ সময় নির্বাচনী সহিংসতায় নাগরিকদের নিহতের বিষয়ে কমিশনের কাছে কী তথ্য আছে সে বিষয়ে চেয়ারম্যান বলেন, ‘যে মানুষগুলো সহিংসতায় মারা গেছেন, আমরা তাদের বিষয়ে খোঁজ-খবর নিচ্ছি। নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দিব। তারা এসব বিষয়ে কী ব্যবস্থা গ্রহণ করে তাও জানব। আমরা কমিশনের পক্ষ থেকেও তদন্ত করব।’

নির্বাচনের নানা বিষয়ে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনে সারা দেশ থেকে আসা মোট ৫২টি অভিযোগের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘বেশির ভাগ অভিযোগ ভয়-ভীতি প্রদর্শন, ভোট না দিতে বাধা প্রদান, এ রকম আসছে। এসব অভিযোগের বিষয়ে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্বাচন কমিশনের সচিবকে বলা হয়েছে।’ দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন সুষ্ঠু ও সহিংসতা কম হয় কিনা সেসম্পর্কে কাজী রিয়াজুল হক বলেন, ‘কোন মৃত্যুই কাম্য না। তবে এ যাবৎ যত নির্বাচন হয়েছে ১৯৯১ সাল থেকে সেগুলোর তুলনায় এবার সহিংসতার হার কম। তাই দলীয় সরকারের অধীনেও অংশগ্রহণ মূলক ও সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব।’