বেসরকারি ভাবে এখন পর্যন্ত এগিয়ে আওয়ামী লীগ

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ২১টি আসনে আওয়ামী লীগ বেসরকারি ভাবে জয়ী হয়েছে। ধারণা করা যাচ্ছে এবার বিশাল ব্যবধানে জয়ের পথে হাঁটছে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট। ভোটগ্রহণ শেষে বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে এসব ফলাফল ঘোষণা করা হচ্ছে।

এখন পর্যন্ত ১৫টি আসনের ফল পাওয়া গেছে। এসব আসনে বেসরকারি ভাবে জয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ ও ১৪ দলীয় জোটের নৌকা প্রতীকের প্রার্থীরা। যারা জয়ী হয়েছেন তারা হলেনঃ

ঢাকা বিভাগ

গোপালগঞ্জ-৩ (কোটালীপাড়া ও টুঙ্গিপাড়া) : শেখ হাসিনা (আওয়ামী লীগ, নৌকা)

রাজশাহী বিভাগ

নাটোর-৩ (সিংড়া) : জুনায়েদ আহমেদ পলক (আওয়ামী লীগ, নৌকা)

নওগাঁ-২ (পত্নীতলা ও ধামইরহাট) : শহিদুজ্জামান সরকার (আওয়ামী লীগ, নৌকা)

নওগাঁ-৬ (আত্রাই ও রানীনগর) : ইসরাফিল আলম (আওয়ামী লীগ, নৌকা)

খুলনা বিভাগ

নড়াইল-২ : মাশরাফি বিন মর্তুজা (আওয়ামী লীগ, নৌকা)

মেহেরপুর-১ (সদর ও মুজিবনগর) : ফরহাদ হোসেন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।

মেহেরপুর-২ (গাংনী) : সাহিদুজ্জামান খোকন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।

কুষ্টিয়া-১ (দৌলতপুর) : আ কা ম সরওয়ার জাহান বাদশাহ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।

কুষ্টিয়া-২ (মিরপুর ও ভেড়ামারা) : হাসানুল হক ইনু (মহাজোট, জাসদ-ইনু, নৌকা)।

কুষ্টিয়া-৩ (সদর) : মো. মাহবুব-উল আলম হানিফ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।

কুষ্টিয়া-৪ (কুমারখালী ও খোকসা) : সেলিম আলতাফ জর্জ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।

যশোর-১ (শার্শা) : শেখ আফিল উদ্দিন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।

যশোর-৬ (কেশবপুর) : ইসমাত আরা সাদেক (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।

মাগুরা-১ (সদর আংশিক ও শ্রীপুর) : সাইফুজ্জামান শিখর (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।

মাগুরা-২ (মোহাম্মদপুর, শালিখা ও সদর আংশিক) : বীরেন শিকদার (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।

বাগেরহাট-৩ (রামপাল ও মোংলা) : হাবিবুন নাহার (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।

চট্টগ্রাম বিভাগ

কক্সবাজার-৪ (উখিয়া-টেকনাফ) : আওয়ামী লীগ প্রার্থী শাহীনা আখতার চৌধুরী বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত।

চট্টগ্রাম-৬ আসনে বিপুল ব্যবধানে জয়ী ফজলে করিম।

বরিশাল বিভাগ

ভোলা-১ আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী তোফায়েল আহমেদ

ভোলা-৩ আসনে দুই লাখ ৫০ হাজার ৪১১ ভোট পেয়ে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী নুরুন্নবী চৌধুরী। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী মো. মোসলেহ উদ্দীন পেয়েছেন ৪০৫৫ ভোট।

ভোলা-৪ আসনে ২ লাখ ৯৯ হাজার ১৫০ ভোট পেয়ে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী মো. মহিবুল্যাহ পেয়েছেন ৬২২২।

এছাড়াও গোপালগঞ্জে শেখ হাসিনা বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়েছেন। গোপালগঞ্জ-৩ (টুঙ্গিপাড়া-কোটালীপাড়া) আসনে বিপুল ভোটে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা। মোট ১০৮টি কেন্দ্রের সবকটির ফলাফল পাওয়ার পর রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে বেসরকারি ভাবে তাকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। ভোট গণনা শেষে জেলা রিটার্নিং অফিসার মোহাম্মদ মোখলেসুর রহমান জানান, আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনাকে বেসরকারি ভাবে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়েছে। শেখ হাসিনার প্রাপ্ত মোট ভোট ২ লাখ ২৯ হাজার ৫৩৯ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির এসএম জিলানী পেয়েছেন ১২৩ ভোট এবং ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী পেয়েছেন ৭১ ভোট।

জয় পেয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। এছাড়া জয় পেয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ। কুষ্টিয়া- ২ (মিরপুর ও ভেড়ামারা) আসনে জয়ী হয়েছেন নৌকার প্রার্থী তথ্যমন্ত্রী ও জাসদের (ইনু) সভাপতি হাসানুল হক ইনু। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন ধানের শীষের প্রার্থী ২০ দলীয় জোটের জাতীয় পার্টির (জাফর) আহসান হাবীব লিংকন। কুষ্টিয়া-৩ (সদর) আসনে জয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. মাহবুব-উল-আলম হানিফ। ওই আসনে তার নিকটতম প্রার্থী বিএনপির জাকির হোসেন সরকার।

তাছাড়া নাটোর-৩(সিংড়া) আসনে জয়ী হয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী আওয়ামী লীগের প্রার্থী জুনাইদ আহমেদ পলক। তার নিকটতম প্রার্থী বিএনপির দাউদার মাহমুদ।

উল্লেখ্য, আজ রোববার একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ করা হয়। প্রত্যাশা অনুযায়ী নির্বাচন ফলাফল হয়েছে বলে মন্তব্য করেছে আওয়ামী লীগ।