শেষ বেলায় নৌকার পক্ষে বিএনপির একটি বড় অংশের নেতাকর্মীরা

শেষ বেলায় বিএনপির একটি বড় অংশের নেতাকর্মীরা নৌকার পক্ষে যোগদান করেছে। নরসিংদী-৪ (মনোহরদী-বেলাব) আসনের আওয়ামী লীগের প্রার্থী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূনের পক্ষে কাজ শুরু করেছে তারা।

নৌকাকে বিজয়ী করতে শুধু আওয়ামী লীগ নয়, এবার মাঠে নেমেছে বিএনপির একাংশের নেতাকর্মীরাও। এরই মধ্যে তারা আওয়ামী লীগে যোগদান করে নৌকার পক্ষে কাজ করছে। আর এই দলীয় কোন্দলে খেসারত দিতে হবে বিএনপির প্রার্থী অ্যাডভোকেট সরদার সাখাওয়াত হোসেন বকুলকে। নেতা-কর্মীরা জানান, মনোনয়ন নিয়ে আওয়ামী লীগে দ্বিধা-বিভক্তি ছিল। কিন্তু সরদার সাখাওয়াত হোসেন বকুল বিএনপির মনোনয়ন পাওয়ার পর পাল্টে যায় আওয়ামী লীগ। এরই মধ্যে বিএনপির বেশ কিছু প্রভাবশালী নেতা ও তাদের কয়েক হাজার কর্মীও আওয়ামী লীগে যোগ দিয়েছেন।

এদের মধ্যে মনোহরদীতে উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক হেলাল উদ্দিন মাস্টার, কৃষক দলের সভাপতি মনিরুজ্জামান মনির চেয়ারম্যান, শুকুন্দী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সিরাজুল হক, বিএনপি নেতা বাকীউল ইসলাম বাকী এবং বেলাব উপজেলার বেলাব ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাবেক মেম্বার স্বপন মাহমুদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আশিকুর ইসলাম হানিফ ও বিএনপি নেতা আমানউল্লাহ অন্যতম। আওয়ামী লীগে যোগ দেয়া মনিরুজ্জামান মনির বলেন, শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে তিনি পাঁচ শতাধিক নেতাকর্মী নিয়ে আওয়ামী লীগে যোগদান করেছেন।

অপরদিকে নির্বাচনী মাঠে সরদার সাখাওয়াত হোসেন বকুল আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের গণপ্রতিরোধের মুখে গণসংযোগ করতে না পেরে নিজ বাড়িতে বসেই নির্বাচনের ছক কষছেন। তিনি বলেন, দুই-তিন জন ছাড়া সকল কর্মী তার পক্ষে মাঠে নেমেছে। আওয়ামী লীগের হামলা, মামলায় বিএনপির নেতাকর্মীরা নির্বাচন করতে পারছে না। সুষ্ঠু নির্বাচন হলে মনোহরদী-বেলাবতে তার জনপ্রিয়তা বোঝা যেত।

আওয়ামী লীগের প্রার্থী নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন বলেন, বকুলের সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে আজ মনোহরদী-বেলাবতে মানুষের গণপ্রতিরোধের সৃষ্টি হয়েছে। সাধারণ মানুষ উন্নয়ন-সমৃদ্ধি ও শান্তিতে বসবাস করতে চায়। তাই এবারের নির্বাচনে সকলের আস্থা শেখ হাসিনার নৌকা প্রতীকে।

প্রসঙ্গত, আওয়ামী লীগ থেকে বর্তমান সংসদ সদস্য আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন মনোনয়ন পেয়েছেন। আর বিএনপি থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন তার ভাই বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য সরদার সাখাওয়াত হোসেন বকুল। নৌকা ও ধানের শীষ থেকে মনোনয়ন পাওয়া দুই প্রার্থী মামাত-ফুপাত ভাই। তারা দুজনই স্ব-স্ব দলে প্রভাবশালী নেতা হিসাবে পরিচিত।