ব্যারিস্টার তাপসের পোস্টার ছেঁড়ার অভিযোগে বিএনপি নেত্রীসহ কারাগারে ১৬

ঢাকা-১০ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী শেখ ফজলে নূর তাপসের পোস্টার ছেঁড়ার অভিযোগে সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রদল নেত্রী নার্গিস আক্তারসহ ১৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারের পর তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

বুধবার তাদের ঢাকা মহানগর হাকিমের আদালতে হাজির করা হলে রাজধানীর ধানমন্ডি থানায় করা নাশকতার মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ওই থানার উপ-পরিদর্শক নুর উদ্দিন। অপরদিকে তাদের আইনজীবীরা জামিনের আবেদন করেন।

উভয়পক্ষের শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম আশেক ইমাম রিমান্ড ও জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

মামলার অন্য আসামিরা হলেন- সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সহ-সম্পাদক কাজী জয়নাল আবেদীন, বিএনপি কর্মী ওমর আব্দুল্লাহ শাহীন, হায়দার আলী, মাসুম হাওলাদার, ইসমাঈল হোসেন বাদল, সালাউদ্দিন সিকদার, মিজান, ইদ্রিস আলী, রফিকুল ইসলাম, তৌফিকুর রহমান খান, নাহিদুজ্জামান, আ. রজিম রনি, আলাউদ্দিন বাবু, ফারুক ও জাকির হোসেন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, গত ২৪ ডিসেম্বর মামলার বাদী বাবু হাওলাদারের দোকানের সামনে দিয়ে মিছিলসহ যাওয়ার সময় নৌকা মার্কার পোস্টার লাগানো দেখে তাকে পোস্টার ছিঁড়ে ফেলতে বলে। আসামিদের মধ্যে কয়েকজন শেখ ফজলে নূর তাপসের পোস্টার ছেঁড়া শুরু করে। বাদী পোস্টার ছিঁড়তে নিষেধ করলে তাকে মারধর করে, দোকান ভাঙচুর করে এবং তার ক্যাশ বাক্স থেকে ১ হাজার ২৩৫ টাকা লুট করে নেয়। বাদী চিৎকার করলে ডিউটিরত টহল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাকে উদ্ধার করতে চাইলে আসামিরা পুলিশকে কিল-ঘুষি মারে। সংবাদ পেয়ে আশপাশের টহলরত পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে পুলিশ ও বাদীকে রক্ষা করে।